অতিরিক্ত ভালোবাসায় স্বামীকে তালাক দিলেন স্ত্রী

স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ক অত্যন্ত পবিত্র ও মধুর। স্বামী-স্ত্রীর সংসার পারস্পরিক দায়িত্ববোধ, স্নেহ-মমতা, বিশ্বাস আর ভালোবাসার ভিত্তিতে স্থাপিত একটি নিবিড় কেন্দ্র। সাংসারিক জীবনে মান অভিমান একটি সাধারণ বিষয়। কখনো হয় মতের অমিল থেকে, কখনো হয় শাসনের প্রয়োজনে। কিন্তু সম্প্রতি একটি অবাক করার মতো ঘটনা ঘটেছে। অতিরিক্ত প্রেম দেখিয়ে স্ত্রীর সাথে ঝগড়া না করার কারণে স্বামীকে তালাক দিয়েছেন এক নারী।

সম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরাতের এক নারী ফুজিরার শরিয়াহ আদালতের শরণাপন্ন হন। সেখানে স্ত্রী শারজাহ আদালতে স্বামীর বিরুদ্ধে মধুর অভিযোগ দাখিল করে বসেন।

তিনি অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, তার স্বামী এতোই ভালো যে, সব সময় তার খেয়াল রাখে, রান্নাবান্না করে খাওয়ানো সহ ঘরের যাবতীয় কাজ নিজেই করে থাকে।

আমিরাতের ফুজিরায় অবাক করার মতো এ ঘটনাটি ঘটেছে।

জানা যায়, স্বামী স্ত্রী দুজনই আরব দেশীয় নাগরিক। তারা বেশ কয়েক বছর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজিরায় বসবাস করছেন।

ওই স্ত্রী আরও অভিযোগে বলেন, বিয়ের অনেক বছর হয়ে গেলও আজ পর্যন্ত আমার স্বামী উচ্চস্বরে কথা বলেনি, ঝগড়া করেনি এমনকি আমাদের মধ্যে মনমালিন্যও সৃষ্টি হয়নি। এসব বিষয় আমার জীবনকে অতিষ্ট করে তুলেছে তাই আমি তালাক চাই।

গত বৃহস্পতিবার ওই স্বামী-স্ত্রীকে নিজেদের মধ্যে সৃষ্ট সমস্যা সমাধানের জন্য একটি সুযোগ দিয়েছে শারজাহ আদালত। ওই দম্পতি এই মধুর সমস্যার সমাধান নিজেরাই করতে পারবে বলে প্রত্যাশা আদালতের।

You might also like