আবরার হত্যা: গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। বুধবার (৯ অক্টোবর) দুপুর ১টায় এ কর্মসূচি পালন করেন তারা। এ সময় আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে ‘আমার ভাই মরল কেন প্রশাসন জবাব চাই’ সহ বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দিতে থাকে। বিক্ষোভ মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন, ইয়ার্ড, বাদাম তলা, ফুচকা চত্ত্বর, হিটলার ঝালমুড়ি কর্ণার হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে এসে শেষ হয়।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক মনসুর মূসা, রাজনীতি ও প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মো. নজরুল ইসলাম, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান মনিরুল হাসান মাসুম প্রমুখসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান মনিরুল হাসান মাসুম বলেন, একজন ছাত্ররূপী সন্ত্রাসী আরেকজন ছাত্রকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এর অর্থ শিক্ষকরা তাদের কোনো শিক্ষাই দিতে পারে নি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বলেন বা বাঙালি চেতনা কোনটাই তাদের কাছে আমরা পৌঁছে দিতে পারিনি। সেই ব্যর্থতা থেকে সেই কষ্ট থেকে আমি আজ এই বিক্ষোভে এসেছি। এ সময় শিক্ষার্থীরা আবরার হত্যার জন্য দায়ীদের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি সহ আবরারের বাবা মায়ের ভরণপোষণ বুয়েট প্রশাসন ও সরকারকে বহন করার দাবি জানায়। আবরারের খুনিদের বিচারে গাফিলতি হলে কঠোর আন্দোলনের ডাক দেওয়ার হুঁশিয়ারি জানায়।

প্রসঙ্গত, রোববার (৬ অক্টোবর) দিবাগত মধ্যরাতে বুয়েটের সাধারণ ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আবরারকে শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যান। সোমবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।এ ঘটনায় ইতোমধ্যে ছাত্রলীগের তেরজনকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আটকদের মধ্যে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সহ-সভাপতিও রয়েছেন।

আরও পড়ুন