ইলেকট্রিক সিগারেটেও গর্ভের শিশুর মারাত্মক ক্ষতি

গর্ভবতী মা সাধারণ সিগারেট খেলে সন্তানের যে ক্ষতি হয়,ইলেকট্রিক সিগারেটেও ঠিক একই ক্ষতি হয় বলে জানিয়েছেন ব্রিটেনের ডারহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা।

প্রচলিত ধূমপানের তুলনায় ই-সিগারেট বা ভ্যাপিং কম ক্ষতিকর বলে অনেকেই দাবি করে থাকেন। কিন্তু সেটি কতটুকু কম, তা নিয়ে বিতর্ক বহু পুরোনো।

চলতি বছরের শুরুতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছিল, কিশোরদের মস্তিষ্কের জন্য ই-সিগারেট খুব ক্ষতিকর।

এখন ডারহামের গবেষকেরা বলছেন, ধূমপায়ী মায়ের শিশুরা অন্যদের চেয়ে বেশি ‍খিটখিটে হয়।

আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের অন্য দুটি গবেষণার উদ্ধৃতি দিয়ে পপুলার সায়েন্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ই-সিগারেটের কারণে হৃদরোগও হয়।

গবেষণা দলের প্রধান ফ্লোরিয়ান বলছেন, ‘তামাক থেকে মুক্তি পেতে যারা ই-সিগারেট ব্যবহার করেন, তাদের জন্য ভালো কোনো খবর নেই। আমাদের গবেষণা বলছে এটি ব্যবহার করলে হার্টের দীর্ঘ মেয়াদি ক্ষতি হয়।’

বাংলাদেশে ১৫ বছর ও তদূর্ধ্ব বয়সী ৩৫ শতাংশের বেশি মানুষ কোনো না কোনো ধরনের তামাক সেবন করে। তবে ই-সিগারেটের প্রভাব নিয়ে বলার মতো কোনো পরিসংখ্যান নেই।

সেটি না থাকলেও সরকার এই ধরনের সিগারেট নিষিদ্ধ করার কথা ভাবছে।

স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা বিবেচনা করে সম্প্রতি ভারত ই-সিগারেট নিষিদ্ধ করেছে।

 

আরও পড়ুন