উৎসবমূখর পরিবেশে সিটির ভোট গ্রহণ চলছে : নানক

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমূখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে।

তিনি বলেন, দু’টি নির্বাচনে ৫৪ লাখ ৬০ হাজার ৩২৮ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করছে। এখন পর্যন্ত ভোটের সুন্দর পরিবেশ বিরাজ করছে, চমৎকার পরিবেশে ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করছে।

নানক আরও বলেন, শীতের দিন, অলসতাও রয়েছে, আস্তে আস্তে ভোটার উপস্থিতি বাড়ছে। নারী ভোটাররা লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট প্রদান করছে, পুরুষ ভোটাররাও আসবে।

জাহাঙ্গীর কবির নানক শনিবার দুপুরে রাজধানীর ধানমণ্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এবং শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপুমনি এমপি, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মৃনাল কান্তি দাস ও কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য শাহাবুদ্দিন ফরাজীসহ দলের অন্য কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) দু’সিটি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে। এতে ভোট গ্রহণের ক্ষেত্রে কোন ধরনের অনিয়মের সুযোগ নেই।

তিনি বলেন, ইভিএম মেশিন নিজেই ভোট পাহারা দেয়। কারণ, কোন ভোটারের আগুলের ছাপ মেলানোর পরই কোন ভোটার তার ভোট প্রদান করতে পারে। তাই, এ প্রযুক্তিতে ভোট কারচুপির কোন সুযোগ নেই।

বিদেশি কূটনৈতিকদের নির্বাচন নিয়ে মন্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে নানক বলেন, যে কোন স্বাধীন, সার্বভৌম দেশেই কূটনৈতিকদের কিছু শিষ্টাচার মেনে চলতে হয়। কিন্তু আমাদের দেশে সেটা তারা মানতে চায় না।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনে গিয়ে আমরা এ বিষয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছি। তাদের কূটনৈতিক শিষ্টাচার মেনে চলতে বলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট দেয়ার পর এ বিষয়ে কথা বলেছেন।

বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিতির সংখ্যা আরো বাড়বে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি ভোটারদের উদ্দেশে আরও বলেন, আপনারা ভোট কেন্দ্রে এসে ভোটাধিকার প্রয়োগ করে নগর পিতাদ্বয়কে নির্বাচিত করুন।

আরও পড়ুন