কলেজের মধ্যেই অধ্যক্ষ-অধ্যাপক মারামারি, ভিডিও ভাইরাল

ঘটনাটি ভারতের মধ্যপ্রদেশের। সেখানে ব্রহ্মদীপ নামের এক সহকারী অধ্যাপক প্রতিদিন কলেজে আসার পর হাঁটার নাম করে বেরিয়ে যান। বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে অধ্যাপককে নিজ কক্ষে ডেকেছিলেন অধ্যক্ষ শেখর। কিন্তু আলোচনার এক পর্যায়ে হঠাৎ অধ্যক্ষের ওপর চড়াও হন অধ্যাপক। এমনকি তাদের মধ্যে মারামারির ঘটনাও ঘটে।

গত ১৫ জানুয়ারি মধ্যপ্রদেশে নাগুলাল মালব্য গভর্নমেন্ট কলেজের এ ঘটনার ভিডিও ইতোমধ্যে নেট দুনিয়ার ছড়িয়ে পড়েছে। পরে পুলিশ সেই ভিডিও দেখে স্ব-প্রণোদিত হয়ে মামলা করেছে। ভিডিওতে দেখা যায়, অধ্যক্ষ-অধ্যাপক প্রথমে দু’জনকে পরস্পরের দিকে আঙুল তুলে কথা বলছেন। তার কিছুক্ষণ পরেই টেবিলের উল্টোদিক থেকে হাতের কাছে যা পাচ্ছেন তাই অধ্যক্ষকে লক্ষ্য করে ছুঁড়ে মারছেন ওই অধ্যাপক। পরে চেয়ার ছেড়ে উঠে এসে অধ্যক্ষের মুখে ঘুসি মারতে দেখা যায় তাকে। তবে এই ঘটনাটির কিছুক্ষণের মধ্যেই বেশ কয়েকজন এসে পরিস্থিতি শান্ত করে।

এ বিষয়ে অধ্যক্ষ শেখর বলেন, ভোপাল থেকে সম্প্রতি সহকারী অধ্যাপক ব্রহ্মদীপ বদলি হয়ে এই কলেজে আসেন। আসার পর থেকে প্রতিদিনই তিনি হাঁটার নাম করে বেরিয়ে যান।

 

তিনি আরও বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে এমনিতেই অধ্যাপকের সংখ্যা কম। সে কথা জানাতেই তাকে রুমে ডেকেছিলাম। কিন্তু হঠাৎ তিনি অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও আমাকে মারতে শুরু করেন।

অভিযোগের বিষয়ে সহকারী অধ্যাপক ব্রহ্মদীপ বলেন, রুমে ডেকে আমাকে অপমান করেছিলেন অধ্যক্ষ। এতে মেজাজ হারাই। শুধু আমার সঙ্গে নয়, অধ্যক্ষ সবার সঙ্গে অত্যন্ত খারাপ আচরণ করেন। তার জন্য ইতিমধ্যে কলেজ ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন আরও তিন জন অধ্যাপক। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ ব্রহ্মদীপকে গ্রেফতার করেনি। ভাইরাল ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

 

আরও পড়ুন