কুমিল্লা-লাকসাম ডুয়েলগেজের উদ্বোধন শনিবার

কুমিল্লা-লাকসাম রেললাইনের ডুয়েলগেজ উদ্বোধন করা হবে শনিবার। রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন কুমিল্লায় এসে এর উদ্বোধন করবেন। উদ্বোধনের পর রেলপথে ঢাকা-চট্টগ্রাম, চট্টগ্রাম-সিলেট, ঢাকা-নোয়াখালী ও চট্টগ্রাম-ময়মনসিংহে যাতায়াতে ২০ মিনিট সময় কমে আসবে। এ কথা নিশ্চিত করেছেন রেলওয়ে কুমিল্লার ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী (পথ) লিয়াকত আলী মজুমদার।

তিনি জানান, রেলমন্ত্রী শনিবার সকালে চট্টগ্রাম অবস্থান করবেন। সেখানে তিনি কিছু কাজের উদ্বোধন করবেন। এরপর কুমিল্লার লাকসামে এসে সেখানেও কিছু কাজের উদ্বোধন করবেন। তারপর কুমিল্লায় এসে ডুয়েলগেজ লাইনের উদ্বোধন করবেন তিনি।

সূত্রমতে, ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলরুটের ঢাকা থেকে আখাউড়া ও লাকসাম থেকে চট্টগ্রামের ডাবল লাইনের কাজ গত তিন বছর আগে শেষ হয়। আখাউড়া থেকে লাকসামের ডাবললাইনের কাজটি শেষ হলে ঢাকা-চট্টগ্রাম পুরোপুরি ডাবললাইন হয়ে যাবে। সম্প্রতি কুমিল্লা থেকে লাকসামের ডাবললাইনের কাজ শেষ হয়। সঞ্চালন সময় কমিয়ে আনতে তাই দ্রুততার সাথে ডুয়েলগেজ লাইনটি উদ্বোধন করা হচ্ছে।

 

সূত্র আরও জানায়, আগামী কয়েকবছরের মধ্যে মিটারগেজ ট্রেনের প্রয়োজনীয়তা কমে আসতে পারে। তাই ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলরুটে ডুয়েলগেজ করা হচ্ছে, যেখানে মিটারগেজ ও ব্রডগেজ দুটি ট্রেনই চলাচল করতে পারে। তারই একটি অংশের উদ্বোধন হবে কাল।

কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা যায়, ট্রেনের একমুখী শিডিউলের কারণে একই সময়ে অনেকগুলো ট্রেন কুমিল্লা স্টেশনের কাছাকাছি অবস্থান করতো। ডুয়েলগেজ লাইনটি উদ্বোধন হয়ে গেলে এ জটিলতা অনেকাংশে কমে আসবে। কমে যাবে শিডিউল বিপর্যয়ের ঘটনাও।

প্রসঙ্গত, ২০২৩ সালের জুনে ঢাকা-চট্টগ্রাম ডুয়েলগেজের কাজ পুরোপুরি শেষ হওয়ার কথা।

আরও পড়ুন