ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে সবজির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে ঝিনাইদহে ধান ও সবজির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বৃষ্টি আর ঝোড়ো বাতাসে অধিকাংশ ধানক্ষেতে মাটিতে শুয়ে গেছে।

পাশাপাশি লাউ, শিম, মুলা, ফুলকপিসহ অন্যান্য সবজি ক্ষেত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে ঠিক কি পরিমাণ ফসলের ক্ষতি হয়েছে তা জানাতে পারেনি জেলা কৃষি অধিদপ্তর।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, চলতি মৌসুমে জেলায় আমন ধানের আবাদ হয়েছে প্রায় ১ লাখ সাড়ে ৪ হাজার হেক্টর জমিতে এবং শীতকালীন সবজির আবাদ হয়েছে প্রায় ৪০০ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে অধিকাংশ জমির ফসল ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে এখন তছনছ।

সদর উপজেলার লাউদিয়া এলাকার নফর আলী বলেন, অধিকাংশ ধান পাকতে শুরু করেছে। গতকালের বৃষ্টি ও বাতাসে সব ধানক্ষেত মাটিতে শুয়ে গেছে। এ অবস্থায় সব ধান নষ্ট হয়ে যাবে।

বিষয়খালী এলাকার চাষি শরিফুল ইসলাম বলেন, সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে সেসব যাদের ক্ষেতের ধান এখনো পাকেনি। এসব ক্ষেতের ধান পানিতে পচে যাবে।

সবজি চাষিরা জানান, মৌসুমের শুরুতে এমন বৃষ্টির সঙ্গে বাতাসের ফলে সব সবজি নষ্ট হয়ে গেছে। এতে ক্ষতির মুখে পড়েছি আমরা।

এ বিষয়ে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক জিএম আব্দুর রউফ বলেন, কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তার জরিপ চলছে। যেহেতু অধিকাংশ ক্ষেতের ধান পেকে গেছে সেহেতু তেমন ক্ষতি হবে না। তবে সবজির ক্ষতি হতে পারে। কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা জরিপকাজ শেষেই বলা যাবে।

আরও পড়ুন