জ্বর, সর্দি-কাঁশিসহ করোনার লক্ষণ দেখা দিলে কী ওষুধ খাবেন?

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ১১ হাজার মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৩ লাখ। বাংলাদেশেও করোনায় দুই জনের মৃত্যু ও ২৪ জন আক্রান্ত হয়েছে।

ভাইরাসটিতে আক্রান্ত কিনা তা বোঝা মুশকিল। কারণ সাধারণ সর্দি-কাঁশি, গলা ব্যথা, জ্বর এগুলো আক্রান্ত ব্যক্তিরাই পরীক্ষার পর করোনা ধরা পড়ছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জ্বর-সর্দি, হাঁচি-কাঁশি গলা ব্যথা এই উপসর্গগুলো কারো দেখা দিলে নিজ উদ্যোগে অন্তত ১৪ দিন হোম কোয়ারিন্টিনে থাকুন। এই সময়ের মধ্যে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে বলা হচ্ছে।

তবে সাধারণ মানুষের প্রশ্ন হচ্ছে- এই উপসর্গ দেখা দিলে বাসায় থেকে কী ধরণের ওষুধ খাবেন? নিজের যত্ম নেবেন কীভাবে? এই প্রশ্নগুলোর উত্তর দিয়েছেন বিজিএমইএ হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার কর্তৃপক্ষ।

করোনার প্রাথমিক লক্ষণ জ্বর-কাঁশি, সর্দি, গলা ব্যথা দেখা দিলে তারা আক্রান্ত ব্যক্তিকে ডাক্তারের কাছে না গিয়ে বাসায় থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। এই উপসর্গগুলোর যে কোন একটি দেখা দিলে তারা ৫টি পরামর্শ মেনে চলতে বলেছেন এবং তার সাথে রোগ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করতে বলেছেন।

পাঁচ পরামর্শ:- অন্তত ১৪ দিন বাসায় অবস্থান করতে হবে। প্রচুর পানি পান করতে হবে। মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। যেন অন্য কেউ আক্রান্ত না হতে পারে। ফল-মূল ও শাক-সবজি খেতে হবে। সব সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে।

লক্ষণ অনুযায়ী যে ওষুধ খেতে হবে:-

১. জ্বর-ব্যথা থাকলে নাপা (এক্সটেন্ড ৬৬৫ এমজি)। ভরা পেটে দিনে তিনবার খেতে হবে (প্রয়োজন মত)।

২. ফেক্সো (১২০ এমজি)। শুধুমাত্র রাতে খেতে হবে (৭ দিন)।

৩. সিভিট (২৫০ এমজি)। সকাল এবং রাতে চুষে খেতে হবে (২ সপ্তাহ)।

৪. এন্টাজল নাসাল (০.১ পারসেন্ট)। শ্বাস-কষ্ট হলে ২ ফোটা করে, দুই নাকের ছিদ্রে, দিনে ৩ বার নিতে হবে।

৫. ক্যাপসুল পিপিআই (২০ এমজি)। সকাল এবং রাতে। খাওয়ার ২০ মিনিট আগে খেতে হবে।

আরও পড়ুন