তারেক রহমান এখন ‘লাইক মাদার লাইক সন’: মতিয়া চৌধুরী

সাবেক মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সংসদ সদস্য মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, তারেক রহমান ‘লাইক ফাদার লাইক সান’ কিন্তু এখন তিনি লা্ইক মাদার লাইক সান’। উনি ক্যাসিনো নিয়ে কথা বলেছেন। লন্ডনে আয়কর রিটার্নে তারেক রহমান আয়ের উৎস ক্যাসিনো দিয়েছে। আমাদের কাছে লিখিত ডকুমেন্ট আছে ।আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্যাসিনোর বিরেুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। তিনি ব্যবস্থা নিয়েছেন।

তিনি বলেন, এই দেশে অস্প্রদায়িক রাজনীতির মানসিকতা সেটা শেখ হাসিনার যেমনটি আছে, তেমনটি আর কারো ভেতরে নাই। দেশের মানুষ এখন খেয়ে পড়ে আছে। এই শীতে গায়ে কাপড় আছে, মাথার ওপর ছাউনি আছে।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনিত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে মতিয়া চৌধুরী এ মন্তব্য করেন।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম এই সদস্য বলেন, জয়, পুতুল, ববি ও টিউলিপ। টিউলিপ ব্রিটিশ পার্লামেন্টে তৃতীয়বারের মতো এমপি। তারেক রহমান ওইখানে পালিয়ে না থেকে নাগরিকত্ব নিয়ে একটু চেষ্টা করে দেখুক, ঝাড়ুদারের অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট হতে পারে কি না? সেইটাও তো সন্দেহ পোষণ করি। কেন না, যে নাকি ওই ধরনের ক্রিমানল। ওই খানে বসে ক্যাসিনোকে আয়ের উৎস হিসেবে বলে তাকে ওই দেশের লোক ভোট দেবে না।

তিনি বলেন, ‘টিউলিপের পথটা ফুলের বিছানা ছিল না। এক একটি ডিগ্রি নেয়, আবার কিছুদিন চাকরি করে। তারা একদিকে শিক্ষিত, মার্জিত, আলোকিত মানুষ। আরেক দিকে তারেক রহমান দস্যুতা, বিকৃত মানসিকতার। মানুষ হত্যার মানসিকতা নিয়ে চলে। তাই তুলনা করাটা খুব খারাপ লাগে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপির সংসদ সদস্যরা ক্যাসিনো নিয়ে কথা বলেন। কে এই ক্যাসিনোর প্রবক্তা? প্রবক্তা হলেন জিয়াউর রহমান। একদিকে বিসমিল্লাহির রহমানের রাহিম লিখলেন অন্যদিকে মদ আর জুয়া এই দেশে চালু করলেন। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন আজ থেকে বাংলাদেশে মদ, জুয়া নিষিদ্ধ আর সেই দেশে হাউজি মদ এবং লাকি খানের ঝাকি নৃত্যকে প্রচলন করেছিলেন জিয়াউর রহমান। বাংলাদেশ একটা অদ্ভুদ উটের পিঠে চড়িয়ে বাংলাদেশকে পরিচালনা করা শুরু করেছিল জিয়া। যে নলে জন্ম, সেই নলে বিনাশ। হত্যার মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছিল, একদিন সেই হত্যার মাধ্যমে সার্কিট হাউজে পড়ে ছিল।’

মতিয়া চৌধুরী বলেন, কই শেখ হাসিনার ছেলের তো কোন ভবন নাই, হাওয়া ভবন কার ভবন? বেগম জিয়ার সন্তানের ভবন, আর খাওয়া ভবনও ওই একই ভবন।

তিনি বলেন, বিএনপি গণতন্ত্রের কথা বলে। ২১ আগস্ট গ্রেনড হামলার মাধ্যমে আমাদের নারী নেত্রী আইভী রহমানসহ ২১ জনকে হত্যা করা হল। সেদিনের হামলায় আমাদের প্রধানমন্ত্রীর একটি কান নষ্ট হয়ে গেছে।

সরকার–দলীয় আরেক সাংসদ মোশাররফ হোসেন বলেন, টেকসই উন্নয়নে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে। প্রতিবছর বাজেটের আকার বাড়ছে। অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে বিশ্বের শীর্ষ পাঁচে বাংলাদেশ।

আরও পড়ুন