দুর্ঘটনায় নিহত ছয়জনের দেহ ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়

ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়া মহাসড়কের মদনডাঙ্গার শ্রীরামপুর নামক স্থানে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ট্রাক ও নছিমন মুখোমুখি সংঘর্ষে ৬ জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আরো ৬জন আহত হয়েছেন। নিহত ও আহতরা ঢালাই মিস্ত্রি এবং নছিমনের যাত্রী। নিহতদের শরীর ছিন্নবিছিন্ন হয়ে গেছে। নিতদের বাড়ি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কলমনখালি বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। আহতদের স্থানীয়রা ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

এদের মধ্যে আহত ৩জনকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ও বাকি আরো ৩জনকে কুষ্টিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সড়ক দুর্ঘনার ফলে সড়কে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানা এলাকায় হাটিয়া নামকস্থানে একটি বিল্ডিং ঢালাই কাজ করে নছিমন যোগে বাড়ি যোগে ফিরছিল ঢালাই মিস্ত্রি। এ সময় তারা শৈলকুপা উপজেলার মদনডাঙ্গা শ্রীরামপুর নামক স্থানে পৌঁছালে ঝিনাইদহ থেকে ছেড়ে যাওয়া একটি ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে হয়। এ সময় ঘটনাস্থলে নছিমনের চালকসহ ৬জন নিহত এবং আরো ৬জন ঢালাই শ্রমিক আহত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী আফান উদ্দীন জানান, বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে হতাহতরা একটি নছিমন গাড়িতে চেপে বাড়ি ফিরছিলো। তারা ঝিনাইদহ কুষ্টিয়া সড়কের শ্রীরামপুর নামক স্থানে পৌঁছালে রাস্তা খারাপ হওয়ায় পাশ দিয়ে (রং সাইট) যেতে গেলে প্রথমে তাদের বহনকৃত নছিমনকে পেছন থেকে আসা একটি পরিবহনে ধাক্কা দেয়। এতে তারা রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে। পরে সেনা কল্যান সংস্থার একটি ট্রাক তাদের পিষ্ট করে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ছিন্নভিন্ন হয়ে মারা যায় ৬ জন। এছাড়া ৩ জনকে আহত অবস্থায় ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শৈলকুপা থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

 

আরও পড়ুন