নিষিদ্ধ হয়েও ৭৯ শতাংশ ভোট পেয়ে বর্ষসেরার পথে সাকিব

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ৮ ম্যাচে ২ সেঞ্চুরি, ৫ হাফসেঞ্চুরিতে ৬০৬ রান করেছিলেন সাকিব। বল হাতেও ছিলেন উজ্জ্বল। শিকার করেন ১১ উইকেট। এমন দারুণ পারফরম্যান্স করায় ভারত আর্মির আন্তর্জাতিক বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরুষ ক্যাটাগরিতে মনোনয়ন পান সাকিব আল হাসান।

টুইটারে পোল পোস্টের মাধ্যমে নেওয়া হচ্ছে ভোট। এরপর ঘোষণা হবে বিজয়ীর নাম। গত ২৬ নভেম্বর সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়েছে ভোট গ্রহণ। চলবে আরও কয়েক দিন। তবে সুখবর হলো সবাইকে পেছনে ফেলে এরইমধ্যে এগিয়ে আছেন সাকিব। তার বক্সে পড়েছে ৭৯ শতাংশ ভোট। যেখানে বাকিরা কেউই তার ধারে কাছে নেই। ৯ শতাংশ ভোট পেয়েছেন বেন স্টোকস, ৬ শতাংশ ভোট পেয়েছেন কেন উইলিয়ামসন আর ৫ শতাংশ ভোট পড়েছে স্টিভেন স্মিথের বাক্সে।

ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থকদের সবচেয়ে বড় গ্রুপ ভারত আর্মি। প্রতিবছর বিশ্বের সেরা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারকে ‘প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার’ পুরস্কার দেয় তারা। প্রতিবারের মতো এবারও সেই পুরস্কারটি দেবে এ সমর্থক গোষ্ঠী।

উল্লেখ্য, ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন করার আপাতত এক বছরের জন্য সব ধরণের ক্রিকেটের বাহিরে আছেন সাকিব। তবে এর আগে লম্বা একটা সময় ব্যাটে-বলে বাংলাদেশ ক্রিকেটে আলো ছড়িয়েছেন তিনি। দেশের জার্সি গায়ে ২২ গজ মাতিয়েছেন।

২০০৬ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হারারেতে একদিনের ক্রিকেটে অভিষেক হওয়ার পর এখন পর্যন্ত খেলেছেন ২০৬টি ওয়ানডে ম্যাচ। যেখানে সাকিব রান করেছেন ৬ হাজার ৩২৩। বল হাতে নিয়েছেন ২৬০ উইকেট।

ওয়ানডের পাশাপাশি ক্রিকেটের বাকি দুই ফরম্যাট টি২০ ও টেস্টেও সাকিব সমানভাবে উজ্জ্বল। ৫৬ টেস্টে অংশ নিয়ে করেছেন তিন হাজারের বেশি রান। পাশাপাশি ঝুলিতে পুরেছেন ২১০ উইকেট। আর টি২০’তে ৭৬ ম্যাচ খেলা সাকিবের রান ১ হাজার ৮৯৪। বিপরীতে উইকেট শিকার করেছেন ৯২টি।

আরও পড়ুন