নুসরাতকে জেরার ভিডিওতে যা ছিল

নিজের মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজের হাতে নিপীড়িত হওয়ার পর ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত দ্বিতীয় দফা নিপীড়িত হয় স্থানীয় সোনাগাজী থানার ওসি মোয়াজ্জেমের কাছে জবানবন্দি দেয়ার সময়। যৌন নিপীড়নের জবানবন্দি নেয়ার সময় একজন নারী পুলিশের উপস্থিত থাকার বাধ্যবাধকতা থাকলেও ওসি মোয়াজ্জেম তা মানেন নি।

ওসি মোয়াজ্জেম নিয়মবহির্ভূতভাবে নুসরাতের জবানবন্দি ভিডিও করতে থাকেন। এসময় নুসরাত মুখ ঢেকে কাঁদতে থাকলে মোয়াজ্জেম ধমক দেন নুসরাতকে। বারবার তিনি বলেন, ‘মুখ থেকে হাত সরাও, কান্না থামাও’। ভিডিওতে মোয়াজ্জেমকে এও বলতে শোনা যায়, ‘এমন কিছু হয়নি যে এখনও তোমাকে কাঁদতে হবে।’ ভিডিওতে আরও দেখা যায়, ওসি মোয়াজ্জেম অত্যন্ত অপমানজনক ও আপত্তিকর ভাষায় নুসরাতকে একের পর এক প্রশ্ন করে যাচ্ছেন। নুসরাতের বুকে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানি করা হয়েছে কি-না, এমন প্রশ্ন করতেও শোনা যায়।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) নুসরাতের জবানবন্দি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার অপরাধে আট বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন ওসি মোয়াজ্জেম। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলাগুলোর মধ্যে প্রথম রায় হয়েছে এই মামলারই।

আরও পড়ুন