পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে

পাইকারির পর এবার খুচরা বাজারে কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম। এক সপ্তাহের ব্যবধানে আমদানি করা প্রতি কেজি পেঁয়াজে সর্বোচ্চ ১০ টাকা কমে ১২০ থেকে ১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এর আগে পেঁয়াজ ১৪০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল। আর তুলনামূলকভাবে একটু ধীরে কমছে দেশি পেঁয়াজের দাম। অন্যদিকে চলতি সপ্তাহের প্রথম দিন থেকেই আমদানির পরিমাণ কিছুটা বেড়েছে হিলি স্থলবন্দরে। বন্দর দিয়ে প্রতিদিন ২০ থেকে ২২ ট্রাকে পেঁয়াজ আসছে।

রাজধানীর বেশ কয়েকটি খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, শুক্রবার (৮ নভেম্বর) প্রতি কেজি আমদানি করা পেঁয়াজ ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এই পেঁয়াজের দাম উঠেছিল ১৩০ টাকায়। প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৩০ টাকায়। যা কয়েক দিন আগে সর্বোচ্চ ১৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে।

ক্রেতা-বিক্রেতারা বলছে, আমদানি করা পেঁয়াজের দাম দ্রুত কমছে। সেই তুলনায় কমছে না দেশি পেঁয়াজের দাম। মূলত খোলাবাজারে টিসিবির ৭০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি, মিয়ানমার ও তুরস্কের পেঁয়াজ বাজারে আসা এবং বিভিন্ন সংস্থার মনিটরিংয়ের কারণে পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে।

রামপুরা কাঁচাবাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা ক্রেতা আল-আমিন বলেন, এক দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণ হয়। কিন্তু দাম কমার ক্ষেত্রে কত গড়িমসি! সহজে কমাতেই চান না বিক্রেতারা।

বন্দর সূত্রে জানায়, গেল ৪ কর্ম দিবসে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ৯০ ট্রাকে ১ হাজার ৯২৮ টন ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। এতে দেশের বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ আগের তুলনায় খানিকটা বাড়ায় পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে। গেলো সপ্তাহে বন্দরের পাইকারি বাজারে যে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকা কেজি দরে, ওই পেয়াজই গত ৪ দিন ধরে প্রকার ভেদে ৭ থেকে ৮ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে ৫২ থেকে ৫৮ টাকা কেজি দরে।

হিলি হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি স্বাভাবিক রয়েছে। তবে আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজের ঝাঁজ সপ্তাহের ব্যবধানে কিছুটা কমেছে। তবে গত ৪ দিন ধরে পেঁয়াজের দাম ২ থেকে ৩ টাকা ওঠা নামা করছে।

এদিকে ভারতের রাজস্থান, ইন্দু রাজ্যের পেঁয়াজ ৫২ থেকে ৫৪ টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও ওই দেশের বেলুরি ও নাসিকের পেয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫৬ থেকে ৫৮ টাকা কেজি দরে।

বাড্ডা শাহজাদপুরের মুদি দোকান শরিফুল ট্রেডার্সের বিক্রেতা হাসান বলেন, পাইকারিতে দাম কমার কারণে খুচরায়ও কমেছে। আমদানি করা প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১২০ টাকা এবং দেশি পেঁয়াজ ১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কেজি প্রতি ১০ টাকা কমেছে।

আরও পড়ুন