বন্ধুর হয়ে প্রক্সি দিতে গিয়ে আটক

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় দাখিল পরীক্ষায় বন্ধুর হয়ে একটি কেন্দ্রে প্রক্সি দিতে গিয়ে আটক হলেন এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী। তার নাম জামশেদ উদ্দিন ওরফে মানিক (১৭)।

বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলার সোনাকানিয়া মজিদিয়া দাখিল মাদ্রাসা (সাতকানিয়া-২) কেন্দ্র থেকে তাকে আটক করা হয়। জামসেদ উপজেলার চরতি ইউনিয়নের দ্বীপ চরতি মুন্সিবাড়ি এলাকার নুরুল আমিনের ছেলে। তিনি আনোয়ারা সরকারি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মুহাম্মদ আজিম শরীফ জানান, চরতি মোহাম্মদীয় দাখিল মাদ্রাসা থেকে মফিজুর রহামন সোনাকানিয়া মজিদিয়া (সাতকানিয়া-২) কেন্দ্রে চলমান দাখিল পরীক্ষায় অংশ নেন। বৃহস্পতিবার ইংরেজি ১ম পত্রের পরীক্ষায় মফিজ অংশ গ্রহণ করেনি। মফিজের পরিবর্তে তারই ঘনিষ্ঠ বন্ধু জামশেদ পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। প্রশ্নের উত্তর পত্রে স্বাক্ষর করার সময় পরিদর্শক জিয়া উদ্দিন প্রবেশ পত্রের ছবি দেখে সন্দেহ হলে তার আসল পরিচয় জানতে চান।

একপর্যায়ে পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শক তার প্রবেশ পত্রের সঙ্গে চেহারায় অমিল দেখতে পান। পরে জামশেদ বন্ধুর হয়ে প্রক্সি পরীক্ষা দেওয়ার কথা স্বীকার করলে পুলিশ তাকে আটক করে।

সাতকানিয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপঙ্কর তঞ্চঙ্গ্যা বলেন, বন্ধুর হয়ে পরীক্ষা দিতে গিয়ে আটক হয়েছেন জামশেদ নামের এক কলেজছাত্র। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন