বরখাস্ত হওয়া সেই পুলিশ কর্মকর্তার পক্ষে লড়বেন ব্যারিস্টার সুমন

হুইপের বিরুদ্ধে ১৮০ কোটি টাকা আয়ের অভিযোগ আনায় সাময়িক বরখাস্ত হওয়া পুলিশ পরিদর্শক সাইফুল আমিনের পক্ষে বিনা ফি’তে আইনি লড়াই করবেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ফেসবুকে ‘ক্যাসিনোর টাকার ভাগ পাওয়া নিয়ে ফেসবুকে কথা বলায় সাসপেন্ড হওয়া পুলিশের ওসি সাহেবের পক্ষে আইনি লড়াই করতে চাই’ শিরোনামে লাইভে এসে তিনি এ কথা জানান।

লাইভে সুমন বলেন, উনাকে গত পরশুদিন সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। উনার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, ফেসবুকে একজন হুইপের বিরুদ্ধে বলেছেন, উনি ক্যাসিনোর ১৮০ কোটি টাকার ভাগ পেয়েছেন। এই স্ট্যাটাস দেয়ার কারণে তাকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ওই ওসি সাহেবের পক্ষে আমি আইনি লড়াই করতে চাই। উনার সাসপেন্ড লেটারটা চ্যালেঞ্জ করে আমি হাইকোর্টে দাড়াতে চাই।

এর আগে গত মঙ্গলবার হুইপের বিরুদ্ধে ১৮০ কোটি টাকা আয়ের অভিযোগ আনা পুলিশ পরিদর্শক সাইফুল আমিনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

এআইজি (পার্সোনেল ম্যানেজমেন্ট-২) এর পক্ষে এআইজি (পিআইও-১) আনোয়ার হোসেন খান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এই আদেশ দেয়া হয়।

পুলিশ সদর দপ্তরের ওই চিঠিতে বলা হয়, বিভাগীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কার্যকলাপ জনসম্মুখে পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি ব্যাপকভাবে ক্ষুণ্ন করা তথা অসদাচরণের দায়ে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮ এর বিধি ১২(১) মোতাবেক এতদ্বারা চাকরি হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো। সাময়িক বরখাস্তালীন তিনি ডিআইজি, রংপুর রেঞ্জ, বাংলাদেশ পুলিশ, রংপুরের কার্যালয়ে সংযুক্ত থাকবেন এবং প্রচলিত বিধি মোতাবেক খোরাকি ভাতা প্রাপ্য হবেন।

উল্লেখ, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পুলিশ পরিদর্শক সাইফুল আমিন অভিযোগ করেন, চট্টগ্রাম আবাহনী ক্লাবের জুয়ার আসর থেকে গত পাঁচ বছরে ক্লাবটির মহাসচিব ও জাতীয় সংসদের হুইপ শামসুল হক চৌধুরী ১৮০ কোটি টাকা আয় করেছেন।

আরও পড়ুন