বড়লেখায় চাঞ্চল্যকর নারী আইনজীবী হত্যা, ৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় চাঞ্চল্যকর মহিলা আইনজীবী আবিদা সুলতানা হত্যা মামলার কারাগারে থাকা ২ আসামিসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ। এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বড়লেখা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জসীম অভিযোগপত্র দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অভিযুক্তরা হলেন নিহত আইনজীবী আবিদা সুলতানার পারিবারিক মসজিদের ইমাম তানভীর আলম (৩৪)। তার ছোট ভাই আফছার আলম (৩০) এবং স্ত্রী হালিমা সাদিয়া (২৮)। জানা গেছে, গত ২৬ মে বেলা ১১টা থেকে রাত ৮টার মধ্যের যে কোনো সময় বড়লেখার মাধবগুল গ্রামে পৈত্রিক বাসায় নির্মমভাবে খুন হন মৌলভীবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য ও জজ কোর্টের আইনজীবী আবিদা সুলতানা। তিনি উপজেলার কাঠাঁলতলী মাধবগুল গ্রামের মৃত আবদুল কাইয়ুমের বড় মেয়ে।

হত্যাকা-ের পরই ওই বাসার অপরাংশের ভাড়াটিয়া ও তাদের পারিবারিক মসজিদের ইমাম তানভীর আলম (৩৪) বাসায় তালা ঝুলিয়ে স্ত্রী ও মাকে শ্বশুরবাড়ি পাঠিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। পরদিন সন্দেহভাজন খুনি হিসেবে শ্রীমঙ্গল থেকে পুলিশ তাকে আটক করে। এর আগে পুলিশ তার স্ত্রী হালিমা সাদিয়া (২৮) ও মা নেহার বেগমকে (৫৫) আটক করেছিল। আইনজীবী আবিদা সুলতানা খুনের ঘটনায় তার স্বামী মো. শরিফুল ইসলাম বসু মিয়া মসজিদের ইমাম তানভীর আলম, তার ছোটভাই আফছার আলম, স্ত্রী হালিমা সাদিয়া (২৮) ও মা নেহার বেগমকে (৫৫) আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জসীম জানান, অ্যাডভোকেট আবিদা সুলতানা হত্যা মামলাটির তদন্ত সম্পন্ন করেছেন। বুধবার ৩ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছেন। অভিযুক্ত ৩ আসামির ২ জন কারাগারে এবং অপর আসামি আফছার আলম পলাতক রয়েছে।

আরও পড়ুন