ভালুকায় আগুনে দোকান পুড়ে অর্ধকোটি  টাকার ক্ষতি ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছে উপজেলা চেয়ারম্যান

ইতি শিকদার, ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগে সাতটি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ভয়াবহ এই আগুনে সাতটি দোকানের ৬৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টা ৪০ মিনিটের দিকে ভালুকা উপজেলার কাচিনা ইউনিয়নের বাটাজোর বাজারে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে কাচিনা ইউনিয়নের বাটাজোর বাজারের আগুন লাগে। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহায়তায় প্রায় আড়াই ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এই অগ্নিকান্ডে বাটাজোর বাজারের সাতটি দোকানে থাকা পণ্যসহ বিভিন্ন পণ্য পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে প্রায়৬৫ লাখ
টাকার ক্ষতি হয়েছে। তবে এই অগ্নিকান্ডে প্রায় দুই কোটি টাকার মালামাল উদ্ধার করা হয়।

এ দিকে, বাটাজোর বাজারের অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের দোকানে থাকা কাপড়, ফ্রিজ, টিভিসহ বিভিন্ন পণ্য পুড়ে গিয়ে এখন তারা নিঃস্ব। ক্ষতিগ্রস্ত মোঃ উজ্জ্বল, ইব্রাহিম ও সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, ভয়াবহ এই আগুনে আমাদের দোকানের বেশির ভাগ মালামালই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

ঘটনার পর রাত দুইটার দিকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং ক্ষতি গ্রস্থদের প্রতি সমবেদনা জানান।

এ অগ্নিকান্ডের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ভালুকা ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র অফিসার ইকবাল হাসান দৈনিক অধিকারকে জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে এই আগুনের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে আমরা ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ও সখিপুর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট মিলে প্রায় আড়াই ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই।

এ ঘটনায় প্রায় ৬৫ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। পাশাপাশি আগুনে পুড়ে যাওয়া থেকে আনুমানিক দুই কোটি টাকার মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন