‘যুবতী রাধে’ গান সরলপুর ব্যান্ডের নয়, বাতিল হলো কপিরাইট

ময়মনসিংহ গীতিকার বহুল জনপ্রিয় গান ‘সর্বত মঙ্গল রাধে’। এর বেশ কয়েকটি লাইন চুরি করে ‘যুবতী রাধে’ নামে একটি গানকে নিজেদের বলে দাবি করেছেন। অবশেষে তাদের কপিরাইট স্বত্ত্ব বাতিল করা হয়েছে। বুধবার রাতে কপিরাইট অফিসের রেজিস্ট্রার জাফর রাজা চৌধুরী গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস বলছে, অনৈতিকভাবে কপিরাইট নিয়েছিল সরলপুর। গানটির ১২টি লাইন পুরোটাই চুরি করা। গানটি আবহমানকাল থেকে চলে আসা লোকগান থেকে কিছুটা রূপান্তর করে, কিছু শব্দ পরিমার্জন করে এ গানটা তারা রচনা করেছে, তবে এটা তাদের মৌলিক গান নয়। এই চৌর্যবৃত্তির অপরাধে ‘যুবতী রাধে’ গানটির স্বত্ত্ব সরলপুর ব্যান্ডের আর থাকছে না।

মেহের আফরোজ শাওন ও চঞ্চল চৌধুরীর গাওয়া ‘সর্বত মঙ্গল রাঁধে’ গানটি ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তা পায়। এরপরেই গানটির কপিরাইট দাবি করে সরলপুর ব্যান্ড। ২০২০ সালে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের পৃষ্ঠপোষকতায় ও পার্থ বড়ুয়ায় সংগীত পরিচালনায় ‘সর্বত মঙ্গল রাধে’ প্রকাশের পর তাদের বিরুদ্ধে কপিরাইট আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ তোলে গানের সত্ত্বাধিকারী সরলপুর ব্যান্ড। বিতর্কের মুখে শাওন-চঞ্চলের গাওয়া গানটি ইন্টারনেট থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়।

 

তাদের অভিযোগ ছিল, ২০১৮ সালের জুনে ‘যুবতী রাধে’ শিরোনামে গানের জন্য সরলপুর ব্যান্ডকে কপিরাইট সনদ দেয় বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস। সেই গানের কথা ও সুর হুবহু রেখে সরলপুরের অনুমতি ছাড়াই ‘সর্বত মঙ্গল রাধে’ শিরোনামে গানটি প্রকাশ করেছে আইপিডিসি।

আরও পড়ুন