যেভাবে নারায়ণগঞ্জের জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পেল পুলিশ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার তক্কার মাঠ এলাকায় একটি এক তলা টিনশেড বাড়ি জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রেখেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর ) মধ্যরাত থেকেই কাউন্টার টেরোরিজমের সদস্যরা বাড়িটি ঘিরে রেখেছে।

এরই মধ্যে ঐ বাড়িটি থেকে এখন পর্যন্ত এক নারীসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। কিভাবে এই জঙ্গী আস্তানার সন্ধান পেল পুলিশ এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের কাউন্টার টেরিজমের একটি টিম গত রাতে ঢাকা থেকে একজনকে গ্রেফতার করে। তার তথ্যের ভিত্তিতে আমারা এইখানে হানা দেই।’

‘এছাড়া আরেকটি বাড়ি থেকে রুমি নামক একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এটি রুমিদের আরেকটি বাসা। এখানে রুমি মাঝেমধ্যে থাকতো। রুমিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ও তার দেখানো মতে আমরা এই বাড়িটিতে ভোর রাতে হানা দেই। হানা দেওয়ার পর আমরা দেখতে পাই যে এখানে প্রচুর পরিমান বিস্ফোরক যার মধ্যে রেডিআডি সহ এক্সক্লুসিভ তৈরি বিভিন্ন ধরনের যে আলামত সামগ্রিক রয়েছে। তার তথ্য মতেই আমারা এইগুলো ডিস্পোজাল করার কাজ শুরু করতে যাচ্ছি।’

মনিরুল ইসলাম আরও বলেন, ‘সম্প্রতি ঢাকায় যে বিস্ফোরক ঘটনা হয়েছে সেইগুলার সাথে এখানে পাওয়া সামগ্রের অনেকটা মিল রয়েছে। যাদেরকে আটক করা হয়েছে এরা মূলত নব্য জেএমবির সদস্য। যে দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে তারা দুজনই নব্য জেএমবির সদস্য এবং এরা আরো দুই এক জনের নাম বলেছে তাদের গ্রেফতারের জন্য আমাদের যে প্রচেষ্টা আছে সেটি অব্যাহত। আর রুমির স্ত্রীকে জিজ্ঞাসা বাদের জন্য নেওয়া হয়েছে। তিনি ঘটনার সাথে জড়িত কিনা তা জিজ্ঞাসাবাদের পর বলতে পারবো।

আরও পড়ুন