যে ৫ নারীর কারণে ঘরে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ লাগে!

যুগ পরে যুগ ধরেই শুনে আসছি প্রেমের নাকি কোন বয়স নেই। কিন্তু একবার প্রেমে পড়লে পরে বয়স নিয়ে বাধে গণ্ডগোল। আবার প্রেমে পড়লে দুনিয়া নাকি রঙিন হয়ে যায়। সবকিছু মনে হয় আশ্চর্য রকমের সুন্দর। কিন্তু প্রেমে পড়ার সময়ে আমরা মোটেও সাবধান হতে পারিনা কারণ সাবধানতা যেখানে সেখানে প্রেম মানায় না। তবুও প্রেমের ক্ষেত্রে ৫ ধরনের নারীদের দূরে থাকাই উত্তম। চলুন জেনে নেই কেমন হয় তারা?

অতিমাত্রায় নারীবাদী যে- কিছু মেয়ে বা নারী আছেন যারা মনে করেন সমাজে যা কিছু খারাপ হচ্ছে, এবং যা আগামী দিনে হতে চলেছে তা সবই পুরুষদের জন্য হয়েছে এবং হবে। শুধু তাই নয়, এঁরা সব ব্যাপারে নিজেদের শ্রেষ্ঠ ভাবেন। বিশ্বে এমন কোনও কাজ নেই যা এঁরা পুরুষদের থেকে ভালো করতে পারেন না। আপনি যা খুশি করুন, মন পাবেন না এসব মেয়েদের।

টাকা ছাড়া কিছুই বোঝেনা এমন- কিছু মেয়ে আছে কথায় কথায় তার ব্র্যান্ডেড পোশাক, হিরের আংটি কোনও কিছু চাইতেই তার আটকায় না? বরং এটা না পেলে অভিমান করে সময়ে অসময়ে। ভেবে দেখুন, এত চাহিদা পরবর্তী সময়েও সামলাতে পারবেন আপনি?

অভিমানকে কাবু করার অস্ত্র হিসেবে নেয় এমন- যে কোন খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে রেগে আগুন হয়ে তেলে বেগুন হয়ে যায় কিছু মেয়ে। সবসময়েই আপনার ছোটখাটো বিষয় নিয়ে যার খুঁতখুঁতে রাগ রয়ে যায়। একবার ভাবুন এরকম মেয়ের সাথে সারা জীবন থাকবেন কিভাবে? একটা সময়ে আপনার নিজের ঘরকে ৩য় বিশ্বযুদ্ধক্ষেত্র মনে হবে।

কথায় কথায় বিয়ে- ফেসবুক চ্যাট থেকে দেখা করেছেন তিনদিন হতে পারিনি, আর এর মধ্যে বাড়ির লোকের সঙ্গে আলাপ করার আবদার! এমনকি উইন্ডো শপিংয়ে শুধু বেনারসির দিকেই নজর। এত দ্রুত সবকিছু হয়ে গেলে তালাকটাও কিন্তু দ্রুতই এগোবে।

হুট করে ব্রেক আপ- আবার আরেকজনের সাথে প্রেম। কয়েকদিন হয়েছে ব্রেক আপ হতে পারেনি মেয়ের তার ভেতরেই আপনি এনট্রি নিলেন। নিজেদের মধ্যে কথা কম হয়, বরং এক্স-কে নিয়ে শুনতে হয় বেশি! বলি কি আর একটু ভেবে দেখুন। কেমন লাগবে তখন?

আরও পড়ুন