রাজনগর ও জুড়ীতে ইটভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তর অভিযানে ৬০ লাখ টাকা জরিমানা

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের রাজনগরে ৩টি ইটভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে একটি ইটভাটাকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এসময় ইটভাটা গুলোকে প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণ করে কার্যক্রম চালাতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে পরিবেশ অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় পরিচালক ইসরাত জাহান পান্নার নেতৃত্বে রাজনগর উপজেলায় এই অভিযান চালানো হয়। এতে মৌলভীবাজার জেলা পরিবেশ অধিদপ্তর সহযোগিতা করে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, সকাল সাড়ে ৯ টায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের মুরালী গ্রামে কাজী খন্দকার ব্রিকসে অভিযান চালানো হয়।.

এসময় ইটভাটাটিতে পরিবেশ বান্ধব উপায়ে ইট তৈরি না করায় ভাটার চুলা ভেঙ্গে ফেলা হয় ও ইট গুড়িয়ে দেয়া হয়। অভিযানের সময় ওই ইটভাটার মালিক উপস্থিত না থাকায় পরিবেশ অধিদপ্তরের কার্যালয়ে স্বশরীরে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পরে একই ইউনিয়নের কর্ণিগ্রাম এলাকায় অবস্থিত এসকে ব্রিকসকে নিয়ম না মেনে কাঠ পুড়ানো ও পরিবেশ বান্ধব চুলা না থাকার অভিযোগে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

তাৎক্ষনিক ২ লাখ টাকা আদায় করে বাকী টাকা দিতে সময় বেধে দেয়া হয়েছে। দুপুর আড়াইটার দিকে একই ইউনিয়নের মহাসহ¯্র গ্রামের এমআর ব্রিকস নামে একটি ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে ভাটার চুলা ভেঙ্গে দেয়া হয়। পরিবেশ অধিদপ্তরের মৌলভীবাজার জেলার সহকারী পরিচালক বদরুল হুদা বলেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক এর নেতৃত্বে এ অভিযান চালিনো হয়। রাজনগরের ৩টি ইটভাটার চুলা ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে কর্ণিগ্রাম এলাকার এসকে ব্রিকসকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে পরিবেশ অধিদপ্তর কর্তৃক দুইটি অবৈধ ইটভাটা ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। সেই সাথে ২০ লাখ টাকা করে ৪০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। উপজেলার এম কোঃ ব্রিকস ও বাব ব্রিকস-এ অভিযান পরিচালনা করে। পরিবেশ অধিদপ্তর মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের ইন্সপেক্টর ফখরুদ্দিন জানান, পরিবেশ অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নেতৃত্বে জুড়ী উপজেলার এম কোঃ ব্রিকস ও বাব ব্রিকস নামে দুইটি অবৈধ ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে তা ভেঙ্গে দেয়া হয় এবং উভয়কে ২০ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।

হাকালুকি হাওর তীরবর্তী ইসিএ এলাকায় এ দু’টি ইটভাটা অবৈধভাবে চলছিল। এগুলো ২০১২ সালের পূর্বের সনাতন পদ্ধতির। বর্তমানে এগুলোর কোন অনুমোদন নেই। এম কোঃ ব্রিকস এর একটি রিট বছর খানেক আগে খারিজ হয় এবং সম্প্রতি বাব ব্রিকস এর রিটও খারিজ হয়। এ এলাকায় পুনরায় ইটভাটা চালু করার কোন সুযোগ নেই।

আরও পড়ুন