সংসার ভাঙল অপূর্ব-নাজিয়ার

New ads 1

জনপ্রিয় টিভি অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও নাজিয়া হাসান অদিতির সংসার ভেঙে গেছে। কয়েক মাস ধরে টানাপোড়েন চলছিল অভিনয়শিল্পী অপূর্বর সংসারে। তারা বেশ কিছু দিন আলাদাও থেকেছেন। অপূর্বের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে এখনও কোনো সাড়া শব্দ না পেলেও স্ত্রী নাজিয়াই তাদের বিচ্ছেদের খবর নিশ্চিত করেছেন।

এর মাধ্যমে দ্বিতীয় বিয়েও টিকলোনা অপূর্বের। প্রভার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর নাজিয়ার সঙ্গে ৯ বছরের সংসারেও ইতি টানতে হলো অপূর্বের।

রোববার স্ত্রী নাজিয়া তার নিজের ফেসবুকে লিখেছেন, ‘স্টপ কলিং মি ভাবি এভরিওয়ান।’ তার এ পোস্ট থেকে মোটামুটি পরিস্কার হওয়া যায় যে, তারা আর একসঙ্গে নেই। এমনকি নিজের প্রোফাইলে ‘ডিভোর্স’ শব্দটিও যুক্ত করে নিয়েছেন নাজিয়া।

New ads 2

ডিভোর্স বিষয়ে বিস্তারিত মুখ না খুললেও মোবাইলে অদিতি বলেন, ‘অপূর্বর সঙ্গে ডিভোর্স হয়েছে, এটা সত্য।’

তবে কী কারণে ডিভোর্স হল, কবে ডিভোর্স হল তা নিয়ে কিছুই বলতে রাজি হননি নাজিয়া হাসান অদিতি। তার ভাষ্য ছিল এমন, ‘অপূর্বর সঙ্গে ডিভোর্স হয়েছে মানুষের এটা জানা দরকার। জানালাম। এর বেশি কিছুই বলতে চাইনা। ব্যক্তিগত বিষয় ব্যক্তিগতই থাকুক।’

অপূর্ব-অদিতির দাম্পত্যজীবনে আয়াশ নামে এক ছেলে সন্তান রয়েছে। সন্তান কার কাছে জানতে চাইলেও অদিতি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, আর কিছু জানাতে চাইছি না। তবে বিচ্ছেদের বিষয়ে অপূর্বের কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি এখনও।

আরও পড়ুন