সাকিবকে অনুমতি দিয়ে খারাপ দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো বিসিবি

আইপিএল খেলা না খেলা অতি অবশ্যই সাকিবের ব্যাপার। সে যদি শ্রীলঙ্কার সাথে টেস্ট না খেলে আইপিএল খেলতে চায়, সেটা তার ব্যাপার।  বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও তাকে অনুমতি দিয়েছে।

এখন আমার প্রশ্ন হচ্ছে-সাকিবকে তো মাসে মাসে লাখ লাখ টাকা বেতন দেয়া হয়। সে তো কেন্দ্রীয় চুক্তির আওতায় আছে। জগতের সব জায়গায় গিয়ে খেলুক। আপত্তি নেই। কিন্তু তার চুক্তি বাতিল করা হোক। ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলোয়াড়রা এই কারণেই কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকে না।

সাকিবকে অনুমতি দিয়ে বিসিবি খুব খারাপ দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো। ছেলেপেলেরা এখন আর কেউ টেস্ট খেলতে চাইবে না। সবাই সাকিবের মতো আইপিএল খেলতেই চাইবে। কিংবা আইপিএলে চান্স না পেলেও পাকিস্তান, আফগানিস্তান কিংবা শ্রীলঙ্কা লিগে গিয়ে খেলবে! আফগানিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথেও আমরা টেস্টে নিজেদের মাটিতে  নাকানিচুবানি খাই তো আর এমনি এমনি না। অথচ অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়রা টেস্ট খেলার জন্য কোটি কোটি টাকার আইপিএল অফার ফিরিয়ে দেয়।

 

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

 

আরও পড়ুন