স্থানীয় সরকার ও ঢাকার দুই সিটির সবার ছুটি বাতিল

রাজধানীর পরে দেশের ৬৪ জেলায় ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ দেখা দেওয়ায় মশক নিধন অভিযানের যথাযথ বাস্তবায়ন ও নিবিড় তদারকির জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগ এবং ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের সবার ছুটি বাতিল করেছে সরকার। একইসঙ্গে ছুটিতে যাওয়া স্থানীয় সরকার বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে স্ব-উদ্যোগে কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২ আগস্ট) এ সংক্রান্ত পৃথক আদেশ জারি করেছে সরকার।

জারি করা আদেশে বলা হয়, রাজধানীতে এডিস মশার বংশবিস্তারের কারণে ডেঙ্গু রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। ডেঙ্গু রোগের সংক্রমণ হতে নাগরিকদের রক্ষাকল্পে স্থানীয় সরকার বিভাগ, সিটি কর্পোরেশন এবং বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/বিভাগ ও দপ্তর/সংস্থা ব্যাপক কর্মসূচি নিয়েছে। এছাড়াও জনসচেতনতা সৃষ্টি, মশার প্রজননস্থল বিনষ্টকরণ, পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা এবং লার্ভা ও মশা নিধন ইত্যাদি কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

সিটি করপোরেশনের জন্য আদেশে বলা হয়, ‘মশক নিধন অভিযান যথাযথ বাস্তবান, সমন্বয় ও নিবিড় তদারকির মাধ্যমে এ কার্যক্রমকে সফল করার জন্য পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থানীয় সরকার বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটি বাতিল করা হলো। ইতোমধ্যে ছুটিতে গমনকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে স্ব-উদ্যোগে কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ প্রদান করা হলো।’

এদিকে স্থানীয় সরকার বিভাগ এক আদেশে জানিয়েছে, এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু রোগে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত ‘মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা সপ্তাহ’ পালন উপলক্ষে সারাদেশে সরকার গৃহীত সকল কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

এছাড়া মশার প্রজননস্থল চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় কীটনাশক (লার্ভিসাইড ও এডাল্টিসাইড) প্রয়োগ কার্যক্রম চলমান রাখা হবে বলে স্থানীয় সরকার বিভাগ জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, সরকারের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, রাজধানীসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা এক হাজার ৬৮৭ জন। গত জানুয়ারি হতে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে ফিরে গেছেন ১৪ হাজার ৬৩৯ জন। বর্তমানে সারাদেশে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৬ হাজার ৫৮২ জন রোগী। এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১৪ জন।

আরও পড়ুন