এবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সাইকেল’ মিলবে মোবাইল অ্যাপে

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৮
  • ২৮ বার পঠিত

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পর এবার  অ্যাপ ভিত্তিক জোবাইক পদ্ধতি চালু হচ্ছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে। বিশ্ববিদ্যালয়ের যেকোনো শিক্ষার্থী এই অ্যাপ ডাউনলোড করে তাদের আইডি ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে এই অ্যাপে একটি একাউন্ট খুলে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ক্যাম্পাসের ভিতরে যেকোনো জায়গায় প্রতি পাঁচ মিনিটে ৩ টাকা খরচে এ জোবাইক পদ্ধতির সুবিধা গ্রহন করতে পারবে।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ২ টার দিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (চবিসাস) কার্যালয়ে জোবাইক কর্তৃক আয়োজিত সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্দ ও শাখা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দের সাথে এক মতবিনিময় সভায় এসব তথ্য তুলে ধরেন জোবাইক’রবিজনেস ডেভেলপমেন্ট স্পেশালিস্ট, ইসতিয়াক আহমেদ শাওন।

তিনি বলেন, ক্যাম্পাসে বিদ্যমান পরিবহন সংকট নিরসনের পাশাপাশি দেশের ট্যুরিজম ইন্ড্রাস্ট্রি এবং দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার ডিজিটালাইজেশনসহ সবদিক চিন্তা করেই আমাদের জোবাইক পদ্ধতি চালু করা। শিক্ষার্থীদের এক হল থেকে অন্য হলে এবং হল থেকে ক্লাসে যাতায়াতের ক্ষেত্রে যানবাহন সহজলভ্য করতে সাইকেল শেয়ারিং সেবা কার্যকরী ভূমিকা রাখবে বলে আমরা মনে করি। পরিবেশ বান্ধব, স্বাস্থ্যকর এবং গ্রীন এই ট্রান্সপোর্টেশন ব্যবস্থা চীন, সিঙ্গাপুরসহ ইউরোপের দেশগুলোতে বেশ জনপ্রিয়। ছেলে-মেয়ে উভয়ের ব্যবহার উপযোগী হিসেবে তৈরি জোবাইকের স্মার্ট এই সাইকেলের সাথে আছে অত্যাধুনিক লক, সোলার প্যানেল এবং জিপিএস পদ্ধতি।

তিন আরও বলেন, একাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে এ অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে। এরপর একটি অ্যাকাউন্ট খুলে সাইকেলের সাথে থাকা কিউআর কোড স্ক্যান করলে সাইকেলটি ব্যবহার করা যাবে। স্মার্টফোনের জোক্রেডিটের মাধ্যমে তাদের একাউন্ট থেকে টাকা কেটে নিবে। তবে জোক্রেডিট ব্যালেন্সে টাকা না থাকলে লক খুলবে না।

ব্যবহারকারীদের অ্যাপের মাধ্যমে সাইকেলের লক খোলার সাথে সাথে সময় গণনা শুরু হবে এবং পুনরায় লক করার মাধ্যমে সময় গণনা শেষ হবে এবং সে অনুযায়ী স্মার্টফোনের জোক্রেডিটের মাধ্যমে তাদের একাউন্ট থেকে টাকা কেটে নিবে। তবে জোক্রেডিট ব্যালেন্স না থাকলে লক খুলবে না। অল্প কিছু দিনের মধ্যেই আমাদের এ সেবাটি চবিতে চালু করব।

এ মতবিনিময় সভায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (চবিসাস) সভাপতি সৈয়দ বাইজিদ ইমন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর থেকে দেশ দিন দিন ডিজিটালের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজকের এ বাংলাদেশ। এ ‘জোবাইক’ পদ্ধতিও সম্ভব হয়েছে একমাত্র ডিজিটালাইজেশনের কারণে। আশা করছি প্রযুক্তিগত উন্নয়নের এ ধারা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি মনসুর আলম, সহ-সভাপতি নাছির উদ্দিন সুমন, আব্দুল মালেক, আমিনুল ইসলাম রাসেল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু তোরাব পরশ, শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক আমীর সুহেল, উপ দপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমান বিপুল, উপ গ্রন্থনা ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ইকবাল হোসাইন টিপু, উপ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রকিবুল হাসান দিনার সহ শাখা ছাত্রলীগের অন্যান্যা নেতৃবৃন্দ।

ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে মনসুর, সুমন, পরশ, বিপুল, টিপু বলেন, ভালো কাজে ছাত্রলীগের সহযোগিতা অতীতেও ছিল বর্তমানেও আছে, আশা করছি ভবিষ্যতেও এ ধারাবাহিকতা থাকবে। শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সর্বদা প্রস্তুত।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..