বাংলাদেশের সকল ক্ষেত্রে জাপানের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে-জাপানের রাষ্ট্রদূত

advertisement

জাপানের রাষ্ট্রদূত এইচ. ই. মি. হিরোয়াসু ইজুমি বলেছেন, অতীতের মত বাংলাদেশের সকল ক্ষেত্রে জাপানের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। বাংলাদেশে কৃষিপণ্য বাজারজাতকরণ ও খাদ্য প্রক্রিয়াজাত করতে আগ্রহী জাপান। এ ছাড়া অবকাঠামো উন্নয়নে সহযোগিতা করতে চায় জাপান।

রাষ্ট্রদূত বলেন, স্বাধীনতার পর থেকেই বাংলাদেশের অবকাঠামো উন্নয়নে পাশে থাকা জাপান এবার কৃষি উন্নয়নেও কাজ করতে চায়। জাপান বাংলাদেশকে কৃষি, খাদ্য পক্রিয়াকরণ, কৃষিপণ্যের মূল্যসংযোজন ও ইরিগেশনে, সোলার ইরিগেশনসহ ও প্রশিক্ষণ এবং অবকাঠামো উন্নয়নে জাপানি সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

সাক্ষাতকালে কৃষিমন্ত্রী বলেন, জাপান বাংলাদেশে বিনিয়োগ করেছে, অংশীদারিত্ব গড়ে তুলছে, বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নিবিড় করেছে। জাপান শুধু বাংলাদেশের উন্নয়নের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদারই নয়, আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে দুই দেশ পরস্পরকে সহযোগিতা দিয়ে আসছে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, আমাদের পোট্রি শিল্প এখন ঘুরে দাড়িয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশেও সমস্যা রয়েছে। আমাদের দুধ, সবজি ও ফলেও উৎপাদন ভালো কিন্তু সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াজাত ব্যবস্থা না থাকায় স্থানীয় বাজারের মূল্য পাচ্ছি না এবং আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশেও সহজ হচ্ছে না। আমাদের ভুট্টা উৎপাদনও ভালো তার পরেও পোল্ট্রি শিল্পের জন্য ভুট্টা আমাদানি করতে হয়, কারণ আমাদের উৎপাদিত ভুট্টা সংরক্ষণ ও পক্রিয়াজাতকরণ ব্যবস্থা না থাকা। এক্ষেত্রে জাপানি সহযোগিতা চাই। এক্ষেত্রে জাপান আমাদের সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

এ সময় রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে ছিলেন দূতাবাসের থার্ড সেক্রেটারি আনরি ইউনো, জাইকার জ্যেষ্ঠ প্রতিনিধি ইয়াসুহিরো কাওয়াজো, জাইকার প্রোগ্রাম এডভাইজার ইউচি কাটসুরি এবং জাইকার ডেপুটি প্রোগ্রাম এডভাইজার মো. মেহেদি হাসান।

advertisement

You might also like

advertisement