ইমরুলের বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাওয়া উচিত ছিল

advertisement

ইমরুল কায়েস ছন্দেই ছিলেন। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও কিছুদিন আগে সেঞ্চুরি করে নিজেকে জানান দিয়েছেন। তার মাত্র কয়েক মাস আগেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচে দুই সেঞ্চুরিসহ তিন শতাধিক রান। তারপরও বিশ্বকাপের দলে জায়গা হলো না ইমরুল কায়েসের।

বাংলাদেশ জাতীয় দলের দুই সাবেক তারকা জাভেদ ওমর বেলিম ও আফতাব আহমেদ মনে করেন, ইমরুলের বিশ্বকাপ দলে সুযোগ না পাওয়াটা হতাশার ব্যাপার। তার সুযোগ পাওয়া উচিত ছিল। তবে এ ছাড়া বিশ্বকাপের জাতীয় দল নিয়ে খুব একটা প্রশ্ন নেই কারো।

দল কেমন হলো, সে নিয়ে কথা বলতে গিয়ে জাভেদ ওমর বললেন, ‘বড় প্রশ্ন তো শুধু ইমরুলের না থাকা। ওর থাকাটা সম্ভবত উচিত ছিল। ওর জন্য দুর্ভাগ্যজনক। এছাড়া তাসকিন তো শুনলাম, ইনজুরি থেকে পুরোপুরি সেরে উঠতে পারেনি। বাকি জায়গাগুলো নিয়ে তেমন প্রশ্ন তোলার সুযোগ নেই। ভালোই হয়েছে দল।

আফতাব প্রায় একই সুরে কথা বললেন। তিনিও বললেন, দলে একমাত্র প্রশ্নচিহ্ন ইমরুলের না থাকা। বাকি কিছু নিয়ে তিনি প্রশ্ন করতে চান না, ‘ইমরুলের সুযোগ পাওয়া উচিত ছিল। কারণ সে রানের মধ্যে ছিল। সে তো অনেক সময় দেশের বাইরে ভালো সার্ভিস দিয়েছে। এ ছাড়া বাকি দল সুন্দর হয়েছে বলে আমার মনে হয়।

এমনকি তরুণ পেসার আবু জায়েদ রাহিকে দলে নেওয়াটাও কোনো সমস্যা মনে করছেন না আফতাব। এই পেসারকে বেশ কিছুদিন ধরেই কাছ থেকে দেখার সুবাদে আফতাব বলছিলেন, ‘দেখেন, তাসকিন তো পুরোপুরি রিকভারি করেনি বলেই শুনলাম। ফলে ওকে নিয়ে ঝুঁকিটা ম্যানেজমেন্ট হয়তো নিতে চায়নি। সে ক্ষেত্রে রাহি ভালো চয়েজ। ও বল সুইং করাতে পারে। ও ইংল্যান্ডে ভালো কিছু করতে পারে।

আফতাব আশাবাদী মানুষ। তিনি মনে করেন, এই দল ইংল্যান্ডে ভালো করতে পারবে। বিশেষ করে খেলোয়াড়রা ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করে গেলে তিনি আশা হারানোর কোনো কারণ দেখেন না। তবে জাভেদ অতোটা আশাবাদী হতে পারছেন না। তিনি বলছিলেন, বাংলাদেশের জন্য খুব কঠিন একটা সফর হতে যাচ্ছে, এবার ফরম্যাটের কারণেই বিশ্বকাপ যে কোনো বারের চেয়ে কঠিন। আর লম্বা এই সফরে ইংল্যান্ডের মতো কন্ডিশনে ধারাবাহিকতা ধরে রাখা কঠিন হবে। তারপরও আমরা আশা করতে চাই।

advertisement

You might also like

advertisement