চকলেটর লোভ দেখিয়ে শিশু ধর্ষণের অভিযোগ

এম,লুৎফর রহমান,নরসিংদী প্রতিনিধিঃ

advertisement

নরসিংদীর শিবপুরে রায়হান মিয়া (২২) নামের এক যুবকরে বিরুদ্ধে চার বছরের এক শিশু ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। আজ রবিবার (২১ এপ্রিল) সকালে নির্যাতনের
শিকার শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগে শনিবার (২০ এপ্রিল) সন্ধ্যায় উপজেলার বাঘাব ইউনিয়নের বাহারদিয়া এলাকায় অভিযুক্তের বাড়িতে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। শিবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মুমিনুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ ও ধর্ষণের শিকার শিশুটির পরিবারের সদস্যরা জানান, অভিযুক্ত রায়হান বাহারদিয়া এলাকার আবদুল বাছেদ মিয়ার ছেলে।

সে শিবপুর বাজারে তাঁর বাবার সঙ্গে হোমিও দোকানের ব্যবসা দেখাশুনা করে। শনিবার সন্ধ্যায় রায়হান তাঁর প্রতিবেশি ওই শিশুটিকে চকলেট খাওয়ার লোভ দেখিয়ে তাঁর ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। ওই সময় শিশুটি চিৎকার করলে আশপাশের বাড়ির লোকজন চলে আসলে অভিযুক্ত রায়হান পালিয়ে যায়। পরে শিশুটিকে জিজ্ঞাসা করলে সে পরিবারের লোকজনকে ঘটনাটি জানায়।

খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সকালে শিশুটিকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। নরসিংদী সদর হাসাপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. মোঃ আমিরুল হক শামীম বলেন, শিশুটিকে আমরা হাসপাতালে ভর্তি করেছি। ইতিমধ্যে গাইনি চিকিৎসক দিয়ে বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করা হয়েছে। এখন মামলা দায়েরের পর আবেদনের প্রেক্ষিতে পরিক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে।

আর এ ঘটনায় একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হচ্ছে। শিবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মুমিনুল হক বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে শিশুটি হাসপাতালে পাঠায়। এ ঘটনায় শিশুটির দাদা বাদি হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত রায়হান ঘটনার পর থেকে পলাতক
রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হচ্ছে।

You might also like

advertisement