জাতীয়

সারাদেশ

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জলদস্যু দিদারুল ইসলাম (৩২) নিহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ৬টি বন্দুক, ২০ রাউন্ড গুলি ও গুলির ৯টি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। আজ ভোর চারটায় দিকে মধ্যম আমজাখালী এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত দিদারুল ইসলাম কুতুবদিয়ার লেমশীখালী এলাকার মৃত ইউসুফ নবীর ছেলে।

র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মো. মেহেদী হাসান জানান, একদল জলদস্যু সাগরে ডাকাতি করার প্রস্তুতি নেয়ার সংবাদে অভিযান চালায় র‌্যাব। এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে র‌্যাবকে লক্ষ করে গুলি ছুড়লে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। বন্দুকযুদ্ধের একপর্যায়ে জলদস্যুরা পিছু হটলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত জলদস্যু সর্দার দিদারুল ইসলামের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ৭টি দেশীয় তৈরি একনলা বন্দুক, ২০ রাউন্ড গুলি, গুলির ৯টি খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত দিদারের বিরুদ্ধে ডাকাতি, অস্ত্র, সন্ত্রাসী, ধর্ষণসহ ১৩টি মামলা রয়েছে। তার মৃতদেহ উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

কুতুবদিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জলদস্যু নিহত, অস্ত্র-গুলি উদ্ধার

আরো খবর

ভিন্ন তথ্য