খালেদা স্ট্রোক করে অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন : চিকিৎসক

 ৯ জুন ২০১৮ শনিবার  ভিডিওসহ দেখতে ক্লিক করুন

অনলাইন ডেস্ক

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গত ৫ জুন পড়ে গিয়ে ৫-৭ মিনিট অজ্ঞান ছিলেন।  চিকিৎসকরা ধারণা করছেন, খালেদা মাইল্ড স্ট্রোক করেছিলেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে শনিবার বিকালে নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে দেখা করেছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা।

কারাগার থেকে বেরিয়ে চিকিৎসকরা দাবি করে বলেন, গত ৫ জুন মাইল্ডস্ট্রোক করে অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এসময় তারা খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন।

চিকিৎসক দলে ছিলেন- মেডিসিনের এফএম সিদ্দীকী, নিউরো সার্জন ওয়াহিদুর রহমান, চক্ষু বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ডা. আবদুল কুদ্দুস ও ডা.মামুন রহমান।

এর আগে দুপুরে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চিকিৎসকদের কারাগারে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের গণমাধ্যম শাখার কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খান।

প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন রাজধানীর বকশীবাজারে স্থাপিত অস্থায়ী পঞ্চম বিশেষ জজ আদালত। রায় ঘোষণার পরপরই খালেদা জিয়াকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে।