দুই বছর পর ইফতারের আয়োজন করতে চলেছে কংগ্রেস

 ১০ জুন ২০১৮ রবিবার  ভিডিওসহ দেখতে ক্লিক করুন

অনলাইন ডেস্ক

দুই বছর পর ইফতার পার্টির আয়োজন করতে চলেছে ভারতের জাতীয় কংগ্রেস। আগামী ১৩ জুন দিল্লির তাজ প্যালেস হোটেলে এই ইফতারের আয়োজন করছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। সেক্ষেত্রে দলের শীর্ষ পদের দায়িত্ব গ্রহণের পর এই প্রথম ইফতারের আয়োজন করতে চলেছেন রাহুল।
শেষবার ২০১৫ সালে ইফতার পাটির আয়োজন করেছিল কংগ্রেস। সেসময় ইফতারের আয়োজন করেছিলেন দলের সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। কিন্তু তার পর থেকে গত দুই বছরে দল কোন ইফতারের আয়োজন করেনি।
সাধারণত সর্বধর্মে বিশ্বাসী সকল রাজনৈতিক নেতাদের পাশাপাশি দিল্লিতে বিভিন্ন রাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতদের আমন্ত্রণ জানানো হয়ে থাকে কংগ্রেসের ইফতারে। এবারেও তার অন্যথা হবে না। তবে চলতি বছরে কংগ্রেসের দেওয়া এই ইফতার পার্টি নজর কাড়তে পারে দেশটির বিরোধী রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাদের উপস্থিতি। কারণ আগামী বছরে দেশটিতে লোকসভার নির্বাচনের আগে কংগ্রেসের নেতৃত্বে যেভাবে অ-বিজেপি বিরোধী দলগুলি একজোট হচ্ছে সেখানে বিরোধী দলগুলির ঐক্যের বার্তাই ফুটে উঠবে বলে মনে করা হচ্ছে।
কয়েকদিন আগেই দেশটির রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ চলতি বছরে রাষ্ট্রপতি ভবনে ইফতার পার্টির আয়োজন না করার সিদ্ধান্তের পরই কংগ্রেসের তরফে ইফতারের আয়োজন করার এই ঘোষণা।
সম্প্রতি ইফতারকে কেন্দ্র করে খরচ বিতর্কের মধ্যেই তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে. চন্দ্রশেখর রাও ইফতার পার্টির আয়োজন করেছিলেন। দিল্লিতেও মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ইফতারের আয়োজন করলেও সেখানে কংগ্রেসের কোন নেতা উপস্থিত ছিলেন না।
তবে ২০১৬ সালের আগে ইফতার পার্টির আয়োজন করে আসছিল কংগ্রেস। কেন্দ্রে ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে দেশটির তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ড. মনমোহন সিং-ও ইফতারের আয়োজন করেছিলেন।