আওয়ামী লীগের অত্যাধুনিক কেন্দ্রীয় কার্যালয় ব্যবহারে ভাড়া গুণতে হবে সহযোগীদের

   ১২  অক্টোবর ২০১৮ শুক্রবার    ভিডিওসহ দেখতে ক্লিক করুন

অনলাইন ডেস্ক

২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিয়ের আওয়ামী লীগের দশ তলা বিশিষ্ট নতুন ভবনটি আধুনিক সব সুযোগ সুবিধাসম্পন্ন। এই কার্যালয়ে বৈঠক বা সভা করতে হলে আপাতত দলের সহযোগী সংগঠনকেও গুনতে হবে ভাড়া। এমন নিয়ম করেছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ।

দলের দলের তহবিল বাড়ানো এবং ব্যবস্থাপনা বাবদ এই ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। এই ভবনের দুটি হল রুম মিলনায়তন রয়েছে। আজ শুক্রবার প্রথমবারের মতো ভাড়া দিয়ে বৈঠক করেছে কেন্দ্রীয় ১৪ দল। ১৪ দলের পক্ষে প্রথম ভাড়াটি পরিশোধ করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিলীপ রায়। ভাড়ার টাকা গ্রহণ করেন আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক ব্যারিষ্টার বিপ্লব বড়ুয়া। সংগঠনের বাইরে আপাতত কাউকে ভাড়া দেয়া হচ্ছে না বলে জানা গেছে আওয়ামী লীগ সূত্রে।

ইতোমধ্যে দলটির পক্ষ থেকে একটি ভাড়া নির্ধারণ করে সহযোগী সংঘঠনগুলোকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে এই ভাড়া বিভিন্ন সংগঠনের জন্য ভিন্ন ভিন্ন। সংগঠনগুলোর আয়ের ওপর ভিত্তি করেই ভাড়ার ক্ষেত্রে পার্থক্য রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি, দলের সাধারণ সম্পাদকের কর্মসূচি ভাড়ার আওতামুক্ত থাকছে।

ভাড়ার রশিদ থেকে জানা যায়, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ), ঢাকা মহানগর উত্তর, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এবং আওয়ামী লীগের প্রত্যেক উপ-কমিটির বৈঠকের জন্য ভাড়া বাবদ গুণতে হবে ২৫ হাজার টাকা। আর ১০ হাজার টাকা ভাড়া দিতে হবে মহিলা আওয়ামী লীগ, কৃষকলীগ, তাঁতী লীগ, যুব মহিলা লীগ, ছাত্রলীগ ও জাতীয় শ্রমিক লীগের। এছাড়া সর্বনিম্ন ভাড়া ৫ হাজার নির্ধারণ করা হয়েছে মহিলা শ্রমিক লীগের জন্য।

আওয়ামী লীগের এক নেতা জানান, আমাদের দু'টি হল রুম আছে। এখানকার সাউন্ডসিস্টেমসহ অন্যান্য ফ্যাসিলিটিজ আছে। এসব ব্যবস্থাপনা বাবদ কিছু খরচ আছে। সেটা আমাদের ছাত্রলীগ-যুবলীগসহ যারাই কর্মসূচি করবে, তাদের এ টাকাটা দিতে হবে।