মিয়ানমারে নিরাপত্তা পরিষদের হস্তক্ষেপ চান ১২ নোবেলজয়ী

 ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ বৃহস্পতিবার সহ দেখতে ক্লিক করুন

অনলাইন ডেস্কঃ

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি হস্তক্ষেপ চেয়ে খোলা চিঠি লিখেছেন ১২ নোবেল জয়ীসহ ৩০ জন বিশিষ্ট বিশ্ব ব্যক্তিত্ব।

বুধবার বিকেলে ঢাকাস্থ ইউনূস সেন্টার থেকে পাঠানো এক বিবৃতির মাধ্যমে এই খোলা চিঠির বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

চিঠিতে মিয়ানমার থেকে শরণার্থী প্রবাহ বন্ধ ও তাদের ফিরিয়ে নেওয়া, রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব প্রদান, জাতিসংঘের ট্রানজিট ক্যাম্প স্থাপন ও পীড়িত এলাকা পরিদর্শনসহ ৭ দফা সুপারিশ তুলে ধরা হয়।

খোলা চিঠিতে স্বাক্ষর কারীদের মধ্যে রয়েছেন- নোবেল জয়ী প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস, বেটি উইলিয়াম্স, মেইরিড মাগুইর, আর্চবিশপ ডেসমন্ড টুটু, অসকার আরিয়াস সানচেজ, জোডি উইলিয়াম্স, শিরিন এবাদী, লেইমাহ বোয়ি, তাওয়াক্কল কারমান, মালালা ইউসাফজাই, স্যার রিচার্ড জে. রবার্টস ও এলিজাবেথ ব্ল্যাকবার্ন। 
তাদের সঙ্গে স্বাক্ষরকারী বিশ্ব ব্যক্তিত্বরা হলেন- মালয়েশিয়ার প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইয়েদ হামিদ আলবার, ইতালির প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী, এমা বোনিনো, ব্যবসায়ী নেতা ও সমাজসেবী স্যার রিচার্ড ব্র্যানসন, নরওয়ের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী গ্রো হারলেম ব্রান্ড্টল্যান্ড, উদ্যোক্তা ও সমাজসেবী মো ইব্রাহীম, মানবাধিকার কর্মী কেরী কেনেডী, লিবীয় নারী অধিকার প্রবক্তা, এসডিজি সমর্থক আলা মুরাবিত, ব্যবসায়ী নেতা নারায়ণ মুর্তি,  থাইল্যান্ডের প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাসিত পিরোমিয়া, আসিয়ানের প্রাক্তন মহাসচিব সুরিন পিটসুয়ান, ব্যবসায়ী নেতা, এসডিজি সমর্থক পল পোলম্যান, আয়ারল্যান্ডের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ম্যারি রবিনসন,জাতি সংঘ সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট সলিউশান্স নেটওয়ার্ক পরিচালক জেফরে ডি. সাচ, অভিনেতা ফরেস্ট হুইটেকার, এবং ব্যবসায়ী নেতা ও সমাজসেবী জোকেন জাইটজ, অভিনেত্রী শাবানা আজমি, কবি ও গীতিকার জাভেদ আখতার এবং পাকিস্তান মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান আসমা জাহাঙ্গীর।