মঠবাড়িয়ায় মাকে কুপিয়ে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দিয়েছে ছেলে

 ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সোমবার সহ দেখতে ক্লিক করুন

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় মাকে কুপিয়ে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দিয়েছে এক পাষন্ড ছেলে। ছেলের হাতে নিহত হতভাগ্য মায়ের নাম সাজেদা বেগম(৬০),আর পাষন্ড ছেলের নাম আঃ রহিম।

তবে কি কারনে এ ঘটনা ঘটেছে তা জানা যায়নি।

সোমবার বিকেলে উপজেলার বড় মাছুয়া ইউনিয়নের ভোলমারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, মঠবাড়িয়া উপজেলার বড় মাছুয়া ইউনিয়নের ভোলমারা গ্রামের বাসিন্দা আঃ জব্বার মোল্লার স্ত্রী সাজেদা বেগম দুপুরের আগে বাড়ি থেকে ঘাস কাটতে বের হয়। এর পর আর ঘরে ফিরে না এলে তাকে পরিবারের অন্যরা খুঁজতে বের হয়। কিন্তু বাড়ির আশপাশ কোথায়  খুঁজে তাকে পাওয়া যায়নি। এক পর্যায় জব্বার মোল্লার ছেলে আঃ রহিম তার বোন আমেনা বেগমকে ফোনে জানান সে মাকে কুপিয়ে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দিয়েছে। ফোনে এ খবর শোনার পরে ঘরের লোকজন ও স্থানীয়রা বাড়ির সামনে একটি পুকুর থেকে সাজেদা বেগমের লাশ তুলে আনেন। ঘাতক ছেলের কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। ধারনা করা হচ্ছে হত্যাকান্ড ঘটানোর পরই পালিয়ে গিয়ে ফোন করে ঘাতক রহিম। 
মঠবাড়িয়া থানার ওসি কেএম তারিকুল ইসলাম জানান, তিনি পিরোজপুর শহরে এসেছেন, তবে তিনিও এ ধরনের ঘটনা শুনেছেন।