সিরাজগঞ্জে যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা

 ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ রবিবারসহ দেখতে ক্লিক করুন

 সুজন সরকারঃ

সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরে যৌতুকের দাবীতে শারমিন অক্তার (২১) নামে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা করেছে পাষন্ড স্বামী। রবিবার সকালে খাজা ইউনুছ আলী মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। দুপুরে পুলিশ হাসপাতাল থেকে গৃহবধুর মৃতদেহ উদ্ধার করে  ময়না তদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে। নিহত শারমিন আক্তার এনায়েতপুর থানার সৈয়দপুর গ্রামের গ্যাদন আলীর স্ত্রী। তার শরীরের

বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিন্থ রয়েছে। ঘটনার পর থেকেই ঘাতক স্বামী পলাতক রয়েছে। এনায়েতপুর থানার ওসি রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাস ও নিহতের পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, সাড়ে ৩ বছর আগে পাশের শাহজাদপুর উপজেলার চর কৈজুরী গ্রামের দরিদ্র কৃষক আবু সাইদের মেয়ে শারমিন আক্তারের সাথে সৈয়দপুর গ্রামের ছবেদ আলীর ছেলে গ্যাদন আলীর সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবীতে গ্যাদন আলী তার স্ত্রী শারমিনকে নির্যাতন করতো। এরই এক পর্যায়ে গত ১৫ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) রাতে গ্যাদন আলী শারমিনকে বেদম পিটিয়ে ও পায়ে ছুরি দিয়ে খুচিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে তাকে এনায়েতপুর খাজা ইউনুছ আলী মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়। রোববার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এঘটনায় নিহতের পিতা আবু সাইদ বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এনায়েতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাস জানান, মারাত্বক নির্যাতন করে শারমিনকে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত স্বামী ও অন্যান্য আসামীদের আটক করা চেষ্টা চলছে।