চাঁদার দাবিতে আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

 ২১ মে ২০১৮ সোমবার  ভিডিওসহ দেখতে ক্লিক করুন

অনলাইন ডেস্কঃ

নাটোরে আওয়ামী লীগ নেতা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী তরিকুল ইসলাম (৪৫) ও তার পুত্র জয়কে (১৭) কে চাঁদার দাবিতে হামলা চালিয়ে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী।

রবিবার আনুমানিক রাত ১০টার  নাটোর সদর উপজেলা ডাকমারা গোরস্থান বাজারে এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। বর্তমানে তারা নাটোর আধুনিক হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। 

জানা যায়, আওয়ামী লীগ নেতা ও শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী  তরিকুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে প্রাণ ও পারটেক্স গ্রুপের নাটোর কারখানার ফলমূল ও  মালামাল সরবরাহের কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। সম্প্রতি সদর উপজেলার কাফুরিয়া ইউনিয়নের মাটিয়াপাড়া ও চৌগাছি গ্রামের কুখ্যাত সন্ত্রাসী রহমান বাহিনীর সদস্যরা ব্যবসায়ী তরিকুলের কাছে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে আসছিল।

তিনি চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ১৬ মে  রহমান বাহিনীর প্রধান রহমান,সুমন, নান্টু, রফিক,জনাব সহ ১০/১৫ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী তরিকুলের ব্যবসায়ীক পাটনার আব্দুল জলিল কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে।। বর্তমানে আব্দুল জলিল মারাত্নক আহত অবস্থায়ভ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ব্যাপারে জলিলের বাবা সালাউদ্দীন বাদী হয়ে রহমান বাহিনীর ৯ জনকে আসামি করে নাটোর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের খবর পাওয়ার পর ক্ষীপ্ত হয়ে ওঠে সন্ত্রাসীরা। 

রবিবার সকালে  রহমান বাহিনীর সদস্যরা তরিকুলের সপ্তম শ্রেনী পড়ুয়া কিশোর পুত্র জয়কে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে জিম্মি করে। পুত্রকে বাঁচাতে তরিকুল এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসী রহমান বাহিনী গোরস্থান বাজারে পিতা ও পুত্রকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এ সময় বাবা ছেলের  চিৎকারে স্থানীয় এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে।

পরে তাদের রক্তাক্ত জখম অবস্থায়  উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নাটোর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে তারা সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ব্যাপারে নাটোর সদর থানায় অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। 

নাটোর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ  ওসি সিকদার মশিউর রহমান জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।