সৈয়দপুরে কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানীর মামলায় গ্রেফতার- ২

 ২৩ এপ্রিল ২০১৭, রোববার সহ দেখতে ক্লিক করুন

জিয়াউর রহমান, নীলফামারীঃ

নীলফামারীর সৈয়দপুরে কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টার মামলায় দুই আসামীকে গ্রেফতার করেছে সৈয়দপুর থানা পুলিশ। গতকাল রবিবার তাদের গ্রেফতার করা হয়। মামলা সূত্রে জানা যায়, সৈয়দপুর উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর হাজারীহাট কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্রী গত ২২ এপ্রিল সকাল ১০টায় কলেজে আসার সময় প্রজাপাড়া গ্রামের হাশেম আলীর ছেলে লেবু (২০) ও একই গ্রামের ইলিয়াছ আলীর ছেলে ফরহাদ (১৯) শ্লীলতাহানীর করার জন্য হাতধরে ধান ক্ষেতে নেওয়ার চেষ্টা করে। ওই সময় দুই পথচারী প্রতিবাদ করলে তাদেরকে মারপিট করে বখাটেরা। পরে ওই ছাত্রীর চিৎকারে অন্য শিক্ষার্থীরা দেখতে পেয়ে কলেজে খবর দিলে শিক্ষার্থীরা এক জোট হয়ে এগিয়ে আসলে দুই বখাটে পালিয়ে যায়। খবরটি ছড়িয়ে পড়লে শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসী টায়ার জ্বালিয়ে রাস্তা অবরোধ সৃষ্টি করে এবং ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ করে বিক্ষোভ করে সেখানে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সভায় বখাটেদের গ্রেফতারের ২৪ ঘন্টা সময় বেধে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ দিন ব্যাপী অভিযান চালায়। এব্যাপারে ওই ছাত্রীর ভাই ওবায়দুল হক বাদী হয়ে সৈয়দপুর থানায় দু জনের নামে একটি মামলা করে। মামলা নং- ১৯, তারিখ ঃ ২২.০৪.১৭ ইং। মামলা দায়ের পর আসামীদের ধরতে পুলিশ সাড়াশি অভিযান চালায়। কিন্তু আসামীরা ছিল আত্মগোপনে। গতকাল রবিবার সোর্সের মাধ্যমে খবর পেয়ে সাব ইন্সপেক্টর জিয়াউর রহমান জিয়ার নেতৃত্বে এএসআই বদরুদ্দোজা ও এএসআই রেজাউল সহ সঙ্গীয় ফোর্স কাশিরাম বেলপুকুর কুটির ঘাট কুড়ার পাড় কবরস্থান থেকে ওই দুই বখাটেকে গ্রেফতার করে। দুই আসামীকে গ্রেফতারের পর হাজারীহাট কলেজের শিক্ষার্থীরা সন্তোষ প্রকাশ করে পুলিশের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন। গ্রেফতারের বিষয়টি থানার অফিসার্স ইনচার্জ আমিরুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন।