আশুলিয়ায় চাকরির প্রলোভনে কিশোরীকে ধর্ষণ, আটক ১

 ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ রবিবার সহ দেখতে ক্লিক করুন

আশুলিয়ায় চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে জাহিদ হাসান (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। রবিবার সকালে চাঁনগাও এলাকার বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়।

 

আটক জাহিদ রংপুরের পীরগাছা থানার গোপাল মধ্যপাড়া গ্রামের মোতালেব হোসেনের ছেলে। তিনি চাঁনগাও ইটখোলা এলাকায় ভাড়া থেকে স্থানীয় সিংজু ব্যাটারি কারখানায় কাজ করেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।  

নির্যাতিত কিশোরী অভিযোগ, ব্যাটারি কারখানায় কাজ দেওয়ার কথা বলে জাহিদের সঙ্গে তার সম্পর্ক গড়ে উঠে। এই সুযোগে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে তাকে এক বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন জাহিদ। পরে পুলিশ ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টফ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করে।  

ভুক্তভোগী ওই কিশোরীর পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয় যে, এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তের পক্ষ নিয়ে গ্রামের মাদবররা মিমাংসা করার পায়তারা করছেন। ফলে ওই কিশোরীর ভাইকে এ নিয়ে মুখ খুলতে নিষেধ করেছেন তারা। কাউকে ধর্ষণের ঘটনা জানালে উল্টো তাদেরকে এলাকা ছাড়ারও হুমকি দেয়া হয়েছে। পরে বিষয়টি আশুলিয়া থানা পুলিশকে জানানো হলে অভিযুক্ত জাহিদকে আটক করা হয়।  

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আউয়াল বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ধর্ষণের মামলা দায়ের হয়েছে।  এর প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত জাহিদকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে।