প্রতিবাদ করায় হত্যাসহ প্রাণনাশের হুমকি গাইবান্ধায় জোর পূর্বক জমির জবর দখল করে হালচাষ

প্রতিবাদ করায় হত্যাসহ প্রাণনাশের হুমকি গাইবান্ধায় জোর পূর্বক জমির জবর দখল করে হালচাষ

গাইবান্ধা থেকে শেখ হুমায়ুন হক্কানী ঃ

গাইবান্ধা ফুলছড়ি উপজেলার  গ্রামে সন্ত্রাসী কায়দায় লাঠিসোটা, ছোরা, দা হত্যার হুমকিসহ নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে পাওয়ার টিলার নিয়ে জমিতে হালচাষ করেছে একটি বাহিনী। অভিযোগে জানা গেছে, গাইবান্ধা সদর উপজেলার বাগুড়িয়া গ্রামের মৃত ছামছুল হকের পুত্র রেজাউল করিম ও রেজা মিয়া পৈত্রিক সুত্রে পাওয়া জমি ১৫ বছর থেকে ভোগ দখল করে আসছিল। রেজা মিয়া কাজের জন্য ঢাকায় থাকায়বাড়িতে লোক না থাকায় পূর্ব শত্র“তার জের ধরে মদনেরপাড়া মোজাস্থ জমি রেজাউল করিম ভাগিশরিক পার্শ্ববর্তী ফুলছড়ি উপজেলার ঘোলদহ গ্রামের আব্দুস সামাদের পুত্র সন্ত্রাসী সাজু মিয়া, টিটু মিয়া, মিন্টু মিয়া, লিটু মিয়া, সাদ্দাম আলী গত ৮ জানুয়ারি সোমবার লাঠিসোটা নিয়ে জোর পূর্বক উক্ত জমি হাল চাষ করতে যায়। শুধু তাই নয়, আসামিরা পাওয়ার টিলার ও লোকজন নিয়ে কিছু জমি চাষ করে। এসময় রেজাউল করিম জমির কাগজপত্র দেখাতে বললে সন্ত্রাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের কাছে থাকা লাঠি, ছোরা, দা দিয়ে রেজাউল করিমকে গালাগালিসহ হত্যা করার জন্য ধাওয়া করে। পরে রেজাউল করিম দৌড়ে পালিয়ে রক্ষা রক্ষা পেলেও সন্ত্রাসী সাদ্দাম আলী ছোরা দ্বারা ধাওয়া করে রেজাউলের বাড়ি পর্যন্ত যায়। এছাড়া মিথ্যাভাবে বলছে এটা আমাদের জমি। কিন্তু তারা কোন জমির কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। এরপর ঘটনাটি স্থানীয় চেয়ারম্যানকে অবগত করা হলে চেয়ারম্যানসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য আসামিদেরকে বললে তারা নানা তালবাহানা করে সময় ক্ষেপন করে। ফলে আমার ও আমার পরিবার নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ ঘটনায় গাইবান্ধা সদর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। এদিকে সন্ত্রাসীদের ভয়ে রেজাউল করিম ও তার পরিবার বাড়ি থেকে বের হতে পারছে না।