পাঞ্জাব ছেড়েই প্রীতির উদ্দেশে বিস্ফোরক মন্তব্য শেবাগের

   ৫  নভেম্বর ২০১৮ সোমবার    ভিডিওসহ দেখতে ক্লিক করুন

অনলাইন ডেস্ক

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের সঙ্গ ছেড়়েছেন বীরেন্দ্র শেবাগ। শনিবার নিজেই টুইটারে জানিয়েছেন কিংসদের সঙ্গে বিচ্ছেদের কথা। টানা দুই মৌসুম ক্রিকেটার হিসেবে পাঞ্জাবের হয়ে খেলার পরে কোচিং স্টাফে যোগ দেন তিনি। মেন্টরশিপের পাশাপাশি ক্রিকেট অপারেশন বিভাগের প্রধান ছিলেন তিনি। দলের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণও করতেন তিনি।

তবে শেবাগের মেন্টরশিপে মোটেই ভাল ফলাফল করতে পারেনি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। আইপিএল তালিকায় যথাক্রমে অষ্টম, পঞ্চম এবং সপ্তম স্থানে শেষ করে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। গত মৌসুমে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে অধিনায়ক করে প্রীতির কিংস ইলেভেন। তবে শুরুটা ভাল হলেও শেষটা মধুর হয়নি। লিগ তালিকার শেষ থেকে দুই নম্বরে সমাপ্ত করে তারা।

তবে শেবাগের প্রস্থানে প্রশ্ন উঠে গেছে প্রীতির সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে। গত মৌসুমে প্রকাশ্যেই রয়্যালস ম্যাচের পরে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন তিনি। কেন এবার প্রীতির দল ছাড়লেন শেবাগ। নেপথ্যে উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। 

সম্প্রতি শেবাগ জানান, ‘‘ফ্র্যাঞ্চাইজির তরফ থেকে একটা ই-মেইল করা হয়েছিল আমাকে, যেখানে জানানো হয় আসন্ন মৌসুমে মেন্টর কিংবা ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডরের আর প্রয়োজন নেই। কিংস ব্রিগেডের সদস্য হিসেবে বেশ ভাল সময় কাটিয়েছি। এটা ওদের সিদ্ধান্ত। সিদ্ধান্ত গ্রহণের সময় আমার কার্যত কোনও ভূমিকাই ছিল না।’’

এখানেই না থেমে শেবাগ আরও জানান, ‘‘আমার মনে হয় না প্রীতির সঙ্গে ঘটনার সঙ্গে এর কোন যোগাযোগ রয়েছে। যদি ওরা নতুন ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর কিংবা মেন্টর চায়, সেটা ওরা সিদ্ধান্ত নেবেন।’’

আসন্ন মৌসুমে কিংস ইলেভেন ঘর গুছিয়ে নামছে। কোচ ব্র্যাড হজকে সরিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে মাইক হেসনকে, যিনি কিছুদিন আগেই নিউজিল্যান্ডের কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।