সিম বন্ধের প্রথম দিনেই গ্রাহক ভোগান্তি

  ২  জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার 

অনিবন্ধিত সিম বন্ধের প্রথম দিনে ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে গ্রাহকদের। যারা নির্দিষ্ট সময়ে মোবাইল ফোনের সিম বায়োমেট্রিক নিবন্ধন করেননি তারা গত মধ্যরাতের পর থেকে বা সকালে ঘুম থেকে উঠে ফোন করতে গিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েছেন। কল করতে গিয়ে কল করতে পারেননি। অনিবন্ধিত সিম বন্ধ করার ফলেই এমনটা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অপারেটররা। সিম নিবন্ধনের সর্বশেষ সময় ছিল ৩১শে মে রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত। জিরো আওয়ার থেকে একে একে অনিবন্ধিত সিম নিষ্ক্রিয় হতে থাকে। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে কাস্টমার কেয়ার ও রিটেইল আউটলেটগুলোতে গ্রাহকরা ভিড় করছেন সিম নিবন্ধনের জন্য। গুলশান ১ নম্বর রিটেইল (খুচরা নিবন্ধনকারী) হামিদ জানান, সিম নিবন্ধন করতে কোনো টাকা মোবাইল গ্রাহককে দিতে হচ্ছে না। আগের নিয়মেই নিবন্ধন করা যাচ্ছে। তিনি বলেন, বন্ধ সিম নিবন্ধন করলে সঙ্গে সঙ্গেই চালু হচ্ছে না। এ জন্য তিন ঘণ্টা সময় লাগছে। তিন ঘণ্টা পরে সিম সক্রিয় হবে। সংশ্লিষ্টরা জানান, অনিবন্ধিত সিম পুরোপুরি বন্ধ করতে এক থেকে দুইদিন লেগে যেতে পারে। বিশেষ করে ইনকামিং কল বন্ধ করাটা একটু সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। বিটিআরসি জানিয়েছে,  নির্ধারিত সময়ে ১০ কোটি ৮১ লাখ ৮ হাজার সিম নিবন্ধন হয়েছে। তবে সিম নিবন্ধন করতে হলে গ্রাহককে তার নম্বরটি নতুন করে কিনে নিতে হবে ১৫০ থেকে ২০০ টাকা দিয়ে। মোবাইল ফোন অপারেটরদের কল্যাণে গ্রাহককে আপাতত কোনো টাকা দিতে হচ্ছে না। তবে গ্রাহক বিনামূল্যে সিম নিবন্ধন করলেও মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো সংশ্লিষ্ট সিম নিবন্ধন বাবদ কর সরকারকে দেবে। বিটিআরসি’র হিসাব মতে, এখনও ২ কোটি ৬০ লাখের কিছু বেশি সিম নিবন্ধন হয়নি। বিটিআরসি’র সর্বশেষ হিসাব মতে দেশের মোট মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৩ কোটি ৪৯ লাখ।
এদিকে, এক বিজ্ঞপ্তিতে মোবাইল সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান এয়ারটেল কর্তৃপক্ষ বলেছে, তাদের একটি প্রধান মোবাইল সুইচিং সেন্টার এমএসসি-০৯ এ হঠাৎ করেই যান্ত্রিক গোলযোগ দেখা দেয়। এ কারণে ঢাকার দক্ষিণাংশ ও নারায়ণগঞ্জে এয়ারটেল গ্রাহকেরা সাময়িক নেটওয়ার্ক সমস্যায় পড়েন। অন্য জায়গাগুলোতে বর্তমানে এ ধরনের কেনো সমস্যা নেই। এর সঙ্গে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম পুনঃনিবন্ধন করা না করারও কোনো সম্পর্ক নেই। যারা সিম পুনঃনিবন্ধন করেছেন, সুইচিং গোলযোগের কারণেই তারা এ সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। বিজ্ঞপ্তিতে দুঃখপ্রকাশ করে এয়ারটেল কর্তৃপক্ষ বলছে, দ্রুত এ সমস্যার সমাধান হবে।