বিমানের টয়লেটে নবজাতকের লাশ, নারী আটক

 ৯ জানুয়ারি২০১৮ মঙ্গলবার ভিডিওসহ দেখতে ক্লিক করুন

অনলাইন ডেস্কঃ

আবুধাবি থেকে জাকার্তাগামী ইতিহাদ বিমানের একটি ফ্লাইটে এক নবজাতকের লাশ খুঁজে পাওয়ার পর এক নারীকে আটক করা হয়েছে। ইন্দোনেশিয়ার পুলিশ ওই নারীকে জাকার্তা বিমানবন্দর থেকে আটক করে। খবর স্কাই নিউজের।

হানি নামের সন্দেহভাজন ওই মাকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, তাদের ধারণা ৩৭ বছর বয়সী হানি শনিবার আবুধাবি থেকে জাকার্তাগামী ইতিহাদ বিমানের একটি ফ্লাইটে গোপনে শিশুটির জন্ম দেন। কেননা হানি ফ্লাইটে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে বৈমানিক থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে অবতরণে বাধ্য হন। 

বিমানটির একজন ক্রু ফ্রান্সেসকো ক্যালোর বলেন, হানি ইকোনমি ক্লাসের যাত্রী ছিলেন। কিন্তু তাকে অক্সিজেন মাস্ক পরিয়ে বিজনেস ক্লাসে সিট দেয়া হয়েছিল। পরে ক্যাপ্টেন ঘোষণা দেন যে, বিমানটি ব্যাংককে অবতরণ করবে।

বিমান অবতরণের চার ঘণ্টা পর হানির রক্তক্ষরণ শুরু হলে মেডিকেল সাহায্য নিশ্চিত করে ব্যাংককেই রেখে আসা হয় তাকে। তবে জাকার্তায় পৌঁছার পরই বিমানটির ভেতর থেকে নবজাতকের লাশ পাওয়া যায়।

জাকার্তা বিমানবন্দর পুলিশের প্রধান আহমাদ ইউসেফ বলেছেন, বিমানটির একটি টয়লেট থেকে পরিচ্ছন্নকর্মীরা প্লাস্টিকের ব্যাগে মোড়ানো এক নবজাতকের লাশ খুঁজে পায়। 

তবে নবজাতকটির মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে কিছু বলতে পারেননি তিনি। পরে আরেকটি ফ্লাইটে করে জাকার্তায় পৌঁছালে হানিকে আটক করে পুলিশ।

ইউসেফ বলেন, হানিকে খুব একটা সুস্থ মনে হয়নি। তাই সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে না। হানিকে এখন বিমানবন্দরের হেলথ সেন্টারে রাখা হয়েছে।

পশ্চিমাঞ্চলীয় জাভার বাসিন্দা হানি একজন অভিবাসী শ্রমিক। চার বছর ধরে তিনি আবুধাবিতে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করছিলেন।