অসুস্থ থাকায় ছবি তুলতে রাজি হইনি

ভক্ত ও দর্শকদের জন্যই আজকে অনেকে তারকা। শোবিজ জগতের মানুষদের নিয়ে ভক্তদের আগ্রহের শেষ নেই। পছন্দের তারকাদের সাথে কথা বলতে এখন মুখিয়ে থাকেন অনেকেই। আর এখন আধুনিক যুগ। কারও সঙ্গে দেখা হলেও চলে সেলফির আবদার। কিন্তু ছবি তুলতে চাওয়াতে যদি তার বিনিময়ে কোন তারকা টাকা দাবি করেন সেটা খুবই বিব্রতকর।

 

সম্প্রতি এমনই এক ঘটনা ঘটিয়েছেন চলচ্চিত্র অভিনেতা আফজাল শরীফের সহকারী। মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবি কবরস্থানের পাশে চায়ের দোকানে এক ভক্তের কাছে এমন উদ্ভট দাবি করে বসেন আফজাল শরীফের সহকারী পরিচয় দেওয়া এক ব্যক্তি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সেই ভক্ত জানান, আমি ছোট বেলা থেকে আফজাল শরীফের অনেক বড় ভক্ত। সন্ধ্যায় আমি বাসা থেকে আপুর সঙ্গে একটা কাজে বাহিরে যাচ্ছিলাম। যাওয়ার পথে আমি একটা চায়ের দোকানে তাকে দেখতে পাই। দেখার সঙ্গে সঙ্গে আমার খুশির অনুভূতি বলে বোঝাতে পারব না। আপুকে বলি দাঁড়াও আমি উনার সঙ্গে সেলফি তুলব। আমি খুশিতে কিছু বলতে না পারায় আপু সেলফি তোলার কথা বলে। বলার সঙ্গে সঙ্গে চটে গিয়ে উনি বলেন, না আমি সেলফি তুলতে পারব না, এসব আমি তুলি না। একপর্যায় উনার পাশে বসে থাকা এক ব্যক্তি তার সহকারী পরিচয় দিয়ে বলে স্যারকে ১০০ টাকার নাস্তা খাওয়ান তাহলে উনি সেলফি তুলবেন!

সহকারী পরিচয় দেওয়া ব্যক্তির বিষয়ে তিনি বলেন, হঠাৎ করে আফজাল শরীফের পাশ থেকে উঠে এসে বললেন স্যারকে নাস্তা খাওয়ান তাহলে আপনাদের সঙ্গে সেলফি তুলবেন। বেশি না, সামান্য ১০০ টাকার নাস্তা খাওয়ালে হবে! তখন আমি তাকে বলি সে কথা উনি নিজে বলুক। এরপর সহকারী পরিচয় দেওয়া ব্যক্তির সাথে কথা না বলে আফজাল শরীফকে বলে আসি আমি আপনার ছবি আর দেখব না।

এ প্রসঙ্গে আফজাল শরীফের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ ধরণের কোন বিষয় না। অনেকে এসব বিষয় নিয়ে দুষ্টমি করে। কারণ এক জায়গায় প্রতিনিয়ত আড্ডা দিলে পরিচয় হয় অনেকের সঙ্গে, সেই সূত্রে হয়তো কেউ দুষ্টামি করে বলেছে। আর আমি অসুস্থ থাকায় ছবি তুলতে রাজি হইনি।

আরও পড়ুন