আসামের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন বিজেপির হিমান্ত বিশ্বশর্মা

আসামের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন বিজেপির হিমান্ত বিশ্বশর্মা। বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়ালের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি। হিমান্ত বিশ্বশর্মার বিষয়ে অনুমোদন দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরপরই গোয়াহাটিতে রোববার হিমান্ত বিশ্বশর্মার নাম প্রস্তাব করেন সর্বানন্দ সনোয়াল। সঙ্গে সঙ্গে তা অনুমোদন করেন বিধানসভার এমএলএরা। খবর এনডিটিভি’র।

আসাম বিধানসভা নির্বাচনে টানা দ্বিতীয় জয় পেয়েছে বিজেপি। এই রাজ্যে আছে ১২৬টি আসন।
এর মধ্যে বিজেপি জিতেছে ৬০ আসনে। অন্যদিকে বিজেপি জোটের অংশীদার এজিপি পেয়েছে ৯টি ও ইউপিপিএল পেয়েছে ৬ আসন।

এর আগে ২০১৬ সালে বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি নির্বাচিত হয়। তখন সর্বানন্দ সনোয়ালকে মুখ্যমন্ত্রী পদে প্রার্থী করা হয় এবং তিনি বিজয়ী হয়ে মুখ্যমন্ত্রী হন। এর মধ্য দিয়ে উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এই রাজ্যে প্রথমবার সরকার গঠন করে বিজেপি। তবে এবার নির্বাচনের পরে কে হবেন মুখ্যমন্ত্রী সে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয় দল। হিমান্ত বিশ্বশর্মা ৬ বছর আগে কংগ্রেস থেকে দলবদল করে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন।

 

উত্তর-পূর্বাঞ্চলের এই রাজ্যকে বিজেপির হাতের মুঠোয় আনার কারিগর হিসেবে কৃতিত্ব দেয়া হয় তাকে। এছাড়া তিনি সর্বানন্দ সনোয়াল সরকারের স্বাস্থ্য বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন। ২০১৫ সালে আসামে ক্ষমতায় ছিল মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ-এর সরকার। তার সরকার থেকে পদত্যাগ করেন হিমান্ত বিশ্বশর্মা। তখন দ্রুততার সঙ্গে তিনি বিজেপিতে যোগ দেন এবং ওই রাজ্যে বিজেপির মূল কৌশলী হয়ে ওঠেন। পরের বছরই রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে বিস্ময়কর জয় পায় বিজেপি। তরুণ গগৈ-এর সরকারকে উৎখাত করেন, যার সরকার টানা তিন দফা ক্ষমতায় ছিল আসামে।

 

আরও পড়ুন