ইবি কর্মকর্তাদের আবারো কর্মবিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা

বেতন স্কেল ও চাকুরির বয়সসীমা পুনর্নির্ধারণসহ তিন দফা দাবি আদায়ে আবারো কর্মবিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) কর্মকর্তা সমিতি।

মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সমিতির সাধারণ সভা এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ৩১ আগস্ট অনুষ্ঠিতব্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী সিন্ডিকেট সভায় কর্মকর্তাদের তিন দফা দাবি না মেনে নেওয়া হলে, আগামী ২ সেপ্টেম্বর থেকে লাগাতার কর্মবিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা দেন কর্মকর্তারা।

কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি শামছুল ইসলাম জোহার সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি এ কে এম শরীফুদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মীর মোর্শেদুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহানুর আলম (কেরামত), কোষাধ্যক্ষ লুৎফর রহমানসহ কার্যনির্বাহী সদস্যরা।

জানা যায়, পূর্বের ন্যায় ক্যাম্পাসের কর্মঘন্টা সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত নির্ধারণ, বেতন বৈষম্য দূরীকরণ ও চাকরির বয়সসীমা ৬২ বছরে উন্নীত করার দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছে বিশ^বিদ্যালয় কর্মকর্তা সমিতি।

সর্বশেষ, চলতি বছরের ৩ মার্চ আন্দোলনের সাথে একমত পোষণ করে পরপর চারদিন কর্মবিরতি পালন করেন বিশ^বিদ্যালয়ের সকল অফিসের কর্মকর্তারা। একইসাথে কর্মকর্তা সমিতির উদ্যোগে বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসন চত্বরে অবস্থান কর্মসূচীও পালন করেন তারা।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কর্মকর্তাদের দাবিসমূহ মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিলে তারা আন্দোলন স্থগিত করেন। এরপর কর্মকর্তাদের বিষয়টি যাচাই বাচাই করার জন্য একটি কমিটি গঠন করে প্রশাসন। কিন্তু দীর্ঘ আড়াই মাসেও এর কোন অগ্রগতি না হওয়ায় মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) সাধারণ সভা করে কর্মকর্তা সমিতি।

এ বিষয়ে কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি শামসুল ইসলাম জোহা বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন দীর্ঘদিন ধরে আমাদের সঙ্গে টালবাহানা করছে। তাই আমাদের দাবিসমূহ আগামী (৩১ আগস্ট) সিন্ডিকেটে মেনে না নেওয়া হলে, আমরা আবারও ২ সেপ্টেম্বর থেকে লাগাতার কর্মবিরতিতে যাবো।

আরও পড়ুন