ইরানের নারীদের মাঠে নিতে মরিয়া ফিফা

এশিয়ার অন্যতম শক্তিশালী ফুটবল দল ইরান। পুরুষ দলের পাশাপাশি এগিয়ে যাচ্ছে ইরানের নারী ফুটবলও। তবে ইরানের কোনো স্টেডিয়ামে নারীদের এখনও প্রবেশের অনুমতি নেই। ধর্মীয় মূল্যবোধের কারণেই এমন নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে ইরান।

তবে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা ইরানের মেয়েদের মাঠে নিতে মরিয়া। ফিফার সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো তো বলতে গেলে মোটামুটি একটা হুমকিই দিয়েই বলেছেন ইরানের মেয়েদের মাঠে প্রবেশ করতে দিতে হবে।

মূলত একটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে নড়েচড়ে বসেছে ফিফা। গত মার্চ মাসে সাহার খোদায়ারি নামে এক নারী তার প্রিয় ইরানি ফুটবল ক্লাব এস্তেগলালের খেলা দেখতে পুরুষের বেশ ধরে স্টেডিয়ামে প্রবেশের চেষ্টা করেন। নীল রঙের পরচুলা পরেছিলেন তিনি, গায়ে ছিল ওভারকোট, তারপরও স্টেডিয়ামে ঢোকার সময় ধরা পড়ে যান তিনি।

এরপর গ্রেপ্তার করা হয় তাকে গ্রেপ্তারের পর জামিনে মুক্ত হলেও গত সপ্তাহে তার ছয় মাসের সাজার রায় দেন আদালত। এরপর আদালতের বাইরেই নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন ওই নারী।

এই ঘটনার পরে থেকেই ইরানের মেয়েদের মাঠে ঢুকতে দেয়ার ব্যাপারে তৎপর ফিফা। ফিফার সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিত বলেন, ‘আমি ইরানিয়ান ফেডারেশনের সঙ্গে আগেও যোগাযোগ করেছি। বর্তমানে ইরানে আমাদের ফিফার একটি প্রতিনিধি দল আছে। আশা করছি, ভালো খবরই আসবে। আমাদের অবস্থান পরিস্কার এবং কঠিন। নারীদের ইরানের ফুটবল স্টেডিয়ামে ঢুকতে দিতে হবে।’

আরও পড়ুন