ঈদেও খুলছে না কক্সবাজারের হোটেল-মোটেল ও পর্যটন স্পট

বেশ কিছুদিন ধরে ক্রমশ বাড়ছে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা। সংক্রমণ রোধে দেশব্যাপী কঠোর বিধিনিষেধের পর কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে লকডাউন শিথিল করেছে সরকার। প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী বন্ধ রয়েছে পর্যটন নগরী কক্সবাজারসহ দেশের সব পর্যটন স্পট।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. মামুনুর রশীদ জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকল ধরণের চলাচল নির্বিঘ্ন করা হলেও কোরবানির ঈদেও খুলছে না কক্সবাজারের হোটেল-মোটেল ও পর্যটন স্পট।

ডিসি বলেন, দেশের মানুষ নিরোগ ও নিরাপদ থাকুক এটাই সরকারের কামনা। তাই করোনা মহামারি রোধে কঠোর লকডাউন পালনে উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে। সচেতনতা সৃষ্টিতে জরিমানা ও সাজার মতো ঘটনার অবতারণাও করতে হয়েছে প্রশাসনকে। মনস্তাত্ত্বিক কারণে লকডাউন শিথিল হলেও আগের মতো পর্যটন স্পট, হোটেল-মোটেল বন্ধ থাকবে।

এদিকে, পর্যটন সেবায় যুক্ত অর্ধলক্ষাধিক মানুষের পরিবারের দূর্বিষহ জীবন স্বাভাবিক রাখার প্রত্যয়ে শর্তসাপেক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে গত ২৪ জুন থেকে হোটেল-মোটেল সচল হবার সিদ্ধান্ত হয়। সবাই হোটেল-মোটেল ও রেস্তোরাঁ ধুয়ে মুছে পরিস্কারও করেছিল। তবে, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে রুম বুকিং না দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়। করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভায় স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. হেলালুদ্দীন আহমদের পরামর্শে এ সিদ্ধান্ত দেওয়া হলেও আবার কঠোর লকডাউনের কবলে পড়ে পর্যটন নগরী।

 

আরও পড়ুন