ঈদের ৫ নাটকে মৌসুমী মৌ

শুরুটা উপস্থাপনা দিয়ে, নান্দনিক উপস্থাপনায় অল্প সময়েই হয়ে উঠেছেন দর্শকনন্দিত। মিষ্টি কথায় দর্শকদের মন ভুলাতে পটু তিনি, মোহনীয় হাসিতে জয় করে নেন অগণিত দর্শকহৃদয়। এ সময়ে অন্যতম ব্যস্ত ও জনপ্রিয় উপস্থাপিকা হিসেবে জুড়ি নেই তার। তিনি আর কেউ নন, মৌসুমী মৌ।

গেল বছরে প্রথমবার অভিনয়ে নাম লিখিয়েছিলেন সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকীর ‘অগ্নি ফসল’ নাটকে। যদিও অভিনয়ের শুরুটা হওয়ার কথা ছিলো একই পরিচালকের সিনেমা দিয়ে কিন্ত মাঝপথে এসে কাজটি বন্ধ হয়ে যায়। তারপরও থেমে নেই তরুণ সম্ভাবনাময়ী এ অভিনেত্রী। বিরতি দিয়ে এ বছরে আবারো অভিনয় শুরু করেন। মাত্র ৫ মাসেই অভিনয় করেছেন ১০টিরও বেশি নাটকে। গেল ঈদে তাকে দেখা গিয়েছে ৪টি নাটকে। সেই ধারাবাহিকতায় এবার ঈদে তিনি হাজির হচ্ছেন ৫ নাটকে।

নাটকগুলো হলো ইয়ামিন এলানের ‘প্রতিবেশী একটু বেশি’, চয়নিকা চৌধুরীর ‘অন্ধ জলছবি’, ‘স্যারের মেয়ে’ সঞ্জয় সমদ্দারের ‘শোকসভা’ ও তারিক মো: হাসানের ‘ভাইয়ের সঙ্গে একান্ত আলাপে’ ইত্যাদি। নাটকগুলোতে মোসুমী মৌ-য়ের সঙ্গে দেখা যাবে আব্দুন নূর সজল, খায়রুল বাসার, মনোজ প্রামাণিক, জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও রাশেদ সীমান্তকে।

ঈদের ব্যস্ততা ও নাটক প্রসঙ্গে মৌসুমী মৌ বলেন, আমার উপস্থাপনা করতেই বেশি ভালো লাগে, বেশ উপভোগ করি। এবার ঈদে বেশ কিছু শো প্রচারিত হবে আর ৫টির মতো নাটক। যদিও আমি ঠিক ওভাবে অভিনেত্রী না, একদমই নতুন; তারপরও গতবারের ঈদে যে নাটকগুলো করেছিলাম, বেশ আনন্দ পেয়েছি। তৃপ্তিও পেয়েছি বলা যায়। এরপর থেকে অনেক নাটকের প্রস্তাব পেয়ে আসছি। উপস্থাপনা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় অভিনয়ে সময় দেওয়াটা কঠিন। তারপরও যতটুকু সময় পেয়েছি, করেছি। অনেকগুলোই ফিরিয়ে দিতে হয়েছে ব্যস্ততায়। তারপরও আশাবাদী কাজগুলো নিয়ে।

তিনি আরো বলেন, অভিনয়ের প্রতি দারুণ একটা ভালো লাগা তৈরি হয়েছে, এটা সত্যি। ভালো গল্প এবং আমি নিজেকে রিলেট করতে পারি এমন চরিত্র পেলে অভিনয়েও নিয়মিত হতে চাই।

নাটকের বাইরে অনেক সিনেমার প্রস্তাব পেয়েছি। কিন্ত সেগুলো আমার মনের মতো নয় বলে, রাজি হইনি। কমার্শিয়াল সিনেমার প্রতি তেমন আগ্রহ নেই। কারণ, আমি এতোটাও গ্ল্যামারাস নই, আমি একদমই ঘরোয়া প্রকৃতির মেয়ে। আমার সঙ্গে যায় এমন গল্প, চরিত্র হলে সিনেমা করা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে চরিত্র বোল্ড হলেও সমস্যা নেই। কিন্ত বোল্ড বলতে আমরা যা বুঝি, সেরকম কিছু হলে কখনোই করবো না।

টেলিভিশন, ইউটিউব দুই মাধ্যমেই হাজির হয়েছেন মৌ। সামনে দেখা যেতে পারে ওটিটি প্লাটফর্মের নতুন কোনো কাজে। তিনি জানান, হৈচৈ এবং জি-ফাইভের সঙ্গে কিছু প্রজেক্ট নিয়ে কথাবার্তা চলছে।

আসছে ঈদে নাটকের বাইরে বিটিভি, এনটিভি, এটিএন বাংলা, এশিয়ান টেলিভিশনের ৫টি শো-তে দেখা যাবে মৌ-কে। এছাড়া প্রথম আলোর নিয়মিত শো তো থাকছেই।

 

 

আরও পড়ুন