একদিকে র‍্যাবের অভিযান, অন্যদিকে পালিয়ে গেল নেপালিরা

অবৈধ ক্যাসিনো ও জুয়ার বিরুদ্ধে যখন র‌্যাবের এ অভিযান চলছিল তখন সেগুনবাগিচার একটি বাসা থেকে ৯ নেপালি পালিয়ে যান। এই নেপালিরা ক্যাসিনো ও জুয়ার কারিগরি সহায়তা দিতেন। ওয়াকিটকি হাতে থাকা একজনের সহায়তায় এই নেপালিরা পালিয়ে যাওয়ার দৃশ্য ধরা পড়েছে ভবনটির সিসিটিভি ফুটেজে।

অবৈধ ক্যাসিনো ও জুয়ারির বিরুদ্ধে র‌্যাব অভিযান চালানোর সময় ক্যাসিনোর সঙ্গে জড়িত নেপালিদের পালিয়ে যেতে ওয়াকিটকি হাতে এক ব্যক্তি তাদের সাহায্য করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ওয়াকিটকি হাতে থাকা ওই ব্যক্তি নিজেকে পুলিশ কর্মকর্তা বলে পরিচয় দেন। তবে পুলিশ বলছে, ওয়াকিটকি হাতে থাকা ব্যক্তির পরিচয় জানতে তদন্ত চলছে। যদি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কারও সম্পৃক্ততা থাকে তাহলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সিসিটিভ ফুটেজে দেখা যায়, বুধবার রাত ১০টা ৪৯ মিনিটে ওয়াকিটকি হাতে সেগুনবাগিচার ৬/সি বাসার মূল গেট দিয়ে ঢুকে লিফটে বাসার উপরে চলে যান কয়েকজন। এরপর ভবনের একটি ফ্ল্যাটে কিছুক্ষণ অবস্থান শেষে ১১টা ২৮ মিনিট ১৫ সেকেন্ডে তারা বের হয়ে যান। এ সময় তাদের একজনের হাতে একটি ব্যাগ দেখা যায়। তারা চলে যাওয়ার পর রাত ১টা ৪৬ মিনিটে একে একে ৯ নেপালি বাসাটি ত্যাগ করেন। এ সময় তাদের হাতেও বেশকিছু ব্যাগ দেখা গেছে।

গত বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে রাজধানীর মতিঝিলের ইয়ংমেনস ক্লাব, ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ক্লাব, বনানীর গোল্ডেন ঢাকা বাংলাদেশ এবং গুলিস্তানের মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্লাবে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে চারটি ক্লাব থেকেই বিপুল পরিমাণ ক্যাসিনো ও জুয়ার সামগ্রী উদ্ধার করা হয়।

আরও পড়ুন