ওমিক্রনের প্রথম ছবি প্রকাশ

ইতালির রোমের ব্যামবিনো গেসু হাসপাতাল করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের ছবি প্রকাশ করেছে। মানচিত্রের মতো দেখতে একটি ত্রি-মাত্রিক ছবি প্রকাশ করেছে তারা।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রকাশিত ছবিটির সঙ্গে করোনার ডেল্টা ধরনের তুলনা করা হয়েছে। সেখানে যায়, ডেল্টার তুলনায় ওমিক্রনে অনেক অভিযোজন (মিউটেশন) হয়।

হাসপাতালটির গবেষকরা বিবৃতিতে জানান, ডেল্টার চেয়ে অনেক বেশি অভিযোজন ঘটেছে ওমিক্রনে। তা স্পষ্টই দেখা যাচ্ছে। ডেল্টার তুলনায় এই নতুন রূপে স্পাইক প্রোটিনে (এর মাধ্যমে ভাইরাস মানব দেহে প্রবেশ করে) সমাহার অনেক বেশি।

 

তবে গবেষকরা জানান, ওমিক্রনে সংক্রমণে মৃত্যুহার কম না বেশি, সে সম্পর্কে নিশ্চিত হতে ভবিষ্যতের গবেষণার দিকে নজর রাখতে হবে।

ব্যামবিনো গেসুর অন্যতম গবেষক এবং মিলান স্টেট ইউনিভার্সিটির ক্লিনিক্যাল মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ক্লদিয়া আলটেরি বলেন, তাদের লক্ষ্য ছিল মিউটেশনের পরিমাণ নির্ধারণ করা। তা সফল হয়েছে। তার পরই স্পাইক প্রোটিনের ত্রি-মাত্রিক ছবি প্রকাশ্যে আনা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ওমিক্রন আরও বেশি ভয়ঙ্কর কি-না, তা জানার জন্য গবেষণা আমরা করিনি। শুধু স্পাইক প্রোটিনে এই রূপের অস্তিত্ব নিশ্চিত করার পাশাপাশি ডেল্টা রূপের তুলনায় নতুন ধরনটিতে কত বেশি বা কম অভিযোজন হচ্ছে, তা দেখতে চেয়েছিলাম।

আরও পড়ুন